অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলামের ২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট : আজ ১১ অক্টোবর চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সাবেক সংসদ সদস্য ও গণপরিষদ সদস্য অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলামের ২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী।

এ উপলক্ষে পরিবারের পক্ষ থেকে আজ বাদ আছর চাঁদপুর শহরে বেগম জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া গ্রামের বাড়ি ফরিদগঞ্জে মরহুমের কবর জিয়ারত ও দোয়া অনুষ্ঠিত হবে।

১৯৯৯ সালের ১১ অক্টোবর তথা ১০ অক্টোবর দিবাগত রাত ১টা ৪৫ মিনিটে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলাম ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহে…রাজিউন)।

ফরিদগঞ্জের চরকুমিরা গ্রামের পাটওয়ারী বাড়ির পারিবারিক গোরস্থানে তাঁকে সমাহিত করা হয়। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন এবং চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

এছাড়া তিনি বিভিন্ন পেশাজীবী, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন।

অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলাম চাঁদপুর রোটারী ক্লাব ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ছিলেন। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তিনি চাঁদপুরে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠকের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী ও নির্লোভ ব্যক্তিত্ব ছিলেন।

চাঁদপুরে মুক্তিযুদ্ধের বিজয়মেলার একজন দক্ষ উপদেষ্টা হিসেবে ১৯৯২ সালে বিজয়মেলার শুরুতে তিনি ভূমিকা রাখেন। একজন সৎ, যোগ্য ও ন্যায়পরায়ণ নেতা হিসেবে অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলাম ছিলেন সর্বজনশ্রদ্ধেয়।

তাঁর বড় মেয়ে অ্যাডঃ জারজিনা আক্তার ঢাকা জজকোর্টের আইনজীবী, বড় ছেলে সাইফুল ইসলাম সেন্টু চাকুরিজীবী, মেজো ছেলে অ্যাডঃ সাইয়েদুল ইসলাম বাবু চাঁদপুর বারের নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনালের পিপি এবং ছোট ছেলে অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান বর্তমানে ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। রোমান চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন।

অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলামের ২৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের পরিবারের উদ্যোগে আজ ১১ অক্টোবর সোমবার বাদ আছর চাঁদপুর শহরের বেগম জামে মসজিদে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। এই মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে মরহুমের শুভাকাক্সক্ষীদের উপস্থিত থাকার জন্যে পরিবারের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে। উল্লেখ্য, অ্যাডঃ সিরাজুল ইসলাম জীবদ্দশায় বেগম জামে মসজিদ কমিটির দীর্ঘ সময়ের সভাপতি ছিলেন।

একই রকম খবর