কচুয়ায় সাহেদাপুরে শালিস বৈঠকে হামলা:থানায় অভিযোগ

কচুয়া সংবাদদাতা:কচুয়া উপজেলার গোহট উত্তর ইউনিয়নের পালগিরী (প্রকাশ সাহেদাপুর গ্রামের পাটওয়ারী বাড়ির) সহোদর ভাইদের মধ্যে সম্পত্তি বিরোধে মঙ্গলবার ( ১ নভেম্বর) শালিস বৈঠকে হামলার ঘটনায় একই বাড়ির কবির হোসেন পাটওয়ারীর পুত্র মো: সুমন বাদী হয়ে ৬ জন সহ আরও অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে বিবাদী করে কচুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগে প্রকাশ, বিবাদীরা একই বাড়ির উশৃংখল প্রতারক প্রকৃতির লোক। সমাজের কোন শালিস দেন-দরবার মান্য করে না।

বিবাদীদের সাথে পূর্ব থেকে সম্পত্তির বিরোধ চলে আসছে। এ বিরোধের জের ধরে কারনে-অকারনে সুমনের পরিবার-পরিজনদের প্রতি অন্যায় অত্যাচার নির্যাতন জুলুম করে আসার ইতেপূর্বে কয়েকবার মারধর করার চেষ্টা সহ সুমনের পরিবার পরিজনকে বিভিন্ন হুমকি প্রদর্শন করে আসছে। বিবাদীদের অত্যাচারে সুমনের পরিবার-পরিজন বাড়িতে বসবাস করা কষ্টকর হয়ে পড়ে।

গত ১ নভেম্বর বিকাল অনুমান সাড়ে ৩ টার দিকে সুমনদের বাড়ির উঠানে তাদের সম্পত্তির বিরোধে শালিস বৈঠকের এক পর্যায়ে বিবাদীরা সুমনের উপর উত্তেজিত হয়ে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি লাথি মেরে তার শরীলের বিভিন্ন স্থানে থেতলানো নিলা ফুলা জখমে আহত করে।

এ সময় স্থানীয় লোকজন সুমনকে উদ্ধার করার জন্য আসতে দেখে বিবাদীরা বিভিন্ন হুমকি ধমকি দিয়ে ঘটনার স্থান ত্যাগ করে চলে যায়। পরে আহত সুমনকে চিকিৎসার জন্য কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নেয় এবং থানায় গিয়ে উল্লেখিত এ অভিযোগ দায়ের করে।

বিবাদী গং জানান, ঘটনার সময় কথাকাটি হয়েছে। তবে সুমনকে কোন মারধর করা হয়নি। তারা থানায় মিথ্যা অভিযোগ করেছে বলে দাবী করে।

অভিযোগটি তদন্তের জন্য কচুয়া থানার এসআই অসীম রায়কে দায়িত্ব দেয়া হয় এবং তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

 

একই রকম খবর