চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে বজ্রপাতে জেলে নিখোঁজ, অপর জেলে আহত

বিশেষ প্রতিনিধি : চাঁদপুর নৌ-সীমানার মেঘনা নদীতে বজ্রপাতে ১জন জেলে নিখোঁজ হয়েছে। এ সময় বজ্রপাতের বিকট শব্দে ১জন জেলে আহত হলে তাকে হাসপতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চাঁদপুর সদর উপজেলার আখনের হাট এলাকায় মেঘনা নদীতে মাছ ধরে ঘাটে আসার সময় বজ্রপাতে মনসুর আহমেদ (৩৮) নামে জেলে পানিতে নিমোজ্জিত হয়ে নিখোঁজ রয়েছে। একই সময় বজ্রপাতে আহত হয়েছেন মনসুর আহমেদের আপন বড় ভাই আলী আহম্মদ হাওলাদার (৪৫)। তিনি বর্তমানে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মাছ ধরার ট্রলারটি ঘটনাস্থল আখনের হাট এলাকা থেকে হরিণা মাছঘাটে আসার সময় বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ জেলে মনসুর ও আহত আলী আহম্মদ হাওলাদার সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়নের গোবিন্দিয়া গ্রামের হাওলাদার বাড়ীর ফজল হাওলাদারের ছেলে। জেলে নৌকার মালিক একই এলাকার জহিরুল ইসলাম রাঢ়ী। তিনিও ট্রলারে ছিলেন।

হরিণা ফেরিঘাট মৎস্য আড়ৎ ব্যবসায়ী আবুল কাশেম কালু হাওলাদার বলেন,দুপুরের দিকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হলে মেঘনা নদীর আখনের হাট এলাকা থেকে জহিরুল ইসলামসহ ৮ জেলে হরিণা ঘাটের দিকে রওয়ানা হয়। ট্রলার চলতি অবস্থায় হঠাৎ বজ্রপাতে মনসুর আহম্মেদ আহত হয়ে পানিতে পড়ে যায় এবং পাশে থাকা তার ভাই আলী আহম্মদ গুরুতর আহত হয়। তাকে আমরা চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। তার চিকিৎসা চলছে। তবে তিনি কানে শুনেন না। ডান পা বজ্রপাতে জ¦লসে গেছে।

হানারচর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আঃ ছাত্তার রাঢ়ী বলেন, ঘটনার পর স্থানীয় ব্যবসায়ীরা আহত জেলেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়েগেছে। অপর জেলেকে উদ্ধারের জন্য সাড়ে ৪টার দিকে চাঁদপুর নৌ ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও ডুবুরি এসেছে। এখন পর্যন্ত নিখোঁজ জেলের সন্ধান পাওয়া যায়নি।স্থানীয়ভাবেও জেলেরা নিখোঁজ জেলের সন্ধান করছেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স চাঁদপুর নদী স্টেশনের লিডার প্রণব বড়ুয়া বলেন, খবর পেয়ে আমরা বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ঘটনাস্থলে এসেছি। আমাদের ডুবুরিরা নিখোঁজ জেলের উদ্ধার কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

একই রকম খবর