চাঁদপুরে অসুস্থ ৪ সন্তানের জননী খুকির আর্থিক সাহায্য কামনা

স্টাফ রির্পোটার ; মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু কি সহানুভোতি মানুষ পেতে পারে না? সন্তানের সামনে আজ মায়ের আর্তনাদ। খুকি বেগম, পিতা মান্নান ঢালী, গ্রাম মধ্য ইচলী।

চাঁদপুর পৌরসভার ১১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা। তিনি গত ২বছর যাবৎ মৃত্যুর সাথে লড়াই করে এখনও বেঁচে আছেন। গত ২বছর আগে অন্যের বাসায় ঝি এর কাজ করতে গিয়ে তার শরীরের ৭০% আগুনে পুড়ে গেছে। এ ঘটনা ২০০০ সালের ৫ ফেব্রুয়ারী। সাথে সাথে তাকে ২৫০ শয্যা চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ।

সেখানে ৩ মাস ১৫ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন। খুকি বেগম (৪০) শরীরের অবস্থা অবনতি হওয়ার কারনে কর্মকত ডাক্তারের পরামর্শে ঢাকা শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সাজারী ইনস্টিটিউট ভর্তি করা হয়েছে। ৯ মাস যাবৎ ঢাকা বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন। তার বেড নং ৭, কেবিন ওয়ার্ড নং— ১১০২, তলা ১৩ রয়েছে। বার্ণ ইউনিটে দৈনিক কেবিন ভাড়া ১ হাজার ২৫০টাকা। ঔষধপত্র সহ দৈনিক প্রায় ৫ হাজার টাকা খরচ ।

এর আগে ২টি অপারেশন হয়েছে যার জন্য খরচ হয়েছে প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা। বর্তমানে তার বাড়িঘর, জমি সব কিছুই শেষ। ৪ সন্তানের জননীকে বাঁচাতে পরিবার ও স্বজনরা এখন দিশাহারা। খুকির বর্তমানে ২টি কিডনিতে ও সমস্যা দেখা দিয়েছে বলে ডাক্তাররা জানান। দৈনিক এতো টাকা খরচ করতে পরিবার হিমশিম খাচ্ছে। এই অসহায় পরিবারের পক্ষে খরচাদি বহন করা এখন অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

স্বামী, ৪ সন্তানের নিয়ে বর্তমানে মানবতায় জীবনযাপন করছেন এই অসহায় পরিবারটি! খুকির স্বামী একজন দিনমজুর। কোন রকম সংসার চলে। খুকি অন্যের বাসায় কাজ করতেন। অন্যের বাসায় কাজ করতে গিয়ে আজ তার এই পরিণতি। তাই খুকি কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন।

দানের হাতটা বাড়িয়ে দিন। আপনার দানের টাকায় বেচে যেতে পারে একটি অসহায় পরিবার। আসুন অসহায় বোনটি পাশে দাঁড়িয়ে রক্ত দিয়ে, সাহস দিয়ে এবং অর্থ দিয়ে তাকে সহযোগিতা করি। ঢাকা হাসপাতালে অর্থের অভাবে বর্তমানে চিকিৎসা বন্ধ রয়েছে। তাই নিরুপায় হয়ে আপনার স্বরনাপন্ন হলাম। টাকা পাঠানোর ঠিকানা— পূবালী ব্যাংক, নতুন বাজার শাখা, চাঁদপুর, হিসাব নং— ০৩৯০১০১০৯৩৮২১, বিকাশ নং— ০১৮২৪—২৮৩০৫৩

একই রকম খবর