চাঁদপুরে আজ থেকে ২১৯টি মণ্ডপে শুরু হচ্ছে দুর্গাপূজা

সাইদ হোসেন অপু চৌধুরী : আজ ষষ্ঠী পূজায় দুর্গা দেবীর আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে পাঁচ দিনব্যাপী উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হচ্ছে।

করোনা মহামারির কারণে গত দু’বছর স্বাত্ত্বিক পূর্জা-অর্চনার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল দুর্গাপূজা। তবে এবার সেই সীমাবদ্ধতা কেটেছে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ উৎসব দুর্গাপূজা। আজ থেকে মন্ডপে মন্ডপে শোনা যাবে ঢাকের বাদ্য, চন্ডী ও মন্ত্রপাঠ, কাঁসার ঘণ্টা, শঙ্খ আর উলুধ্বনি।

এবার সম্প্রতির বাংলোদেশে প্রতি বছরের ন্যায় চাঁদপুরেও এবারও হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা ষষ্ঠীবিহিত পূজার মধ্যদিয়ে আজ থেকে শুরু হচ্ছে। আর ৫ অক্টোবর বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এই উৎসব।

জেলার ৮টি উপজেলায় ২১৯ টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজার জন্য প্রস্তুত। এ গুলো হলো : চাঁদপুর সদরে ৩৬টি ,হাজীগঞ্জে ২৯ টি, কচুয়ায় ৪১টি, হাইমচরে ৬টি,শাহরাস্তি ১৮টি, ফরিদগঞ্জে ২০টি, মতলব দক্ষিণে ৩৮টি এবং মতলব উত্তরে ৩৮টি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা মন্ডপ রয়েছে।

চাঁদপুর সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক লক্ষণ চন্দ্র সূত্রধর জানান, এবছর চাঁদপুর সদর উপজেলায় মোট ৩৬টি মন্ডপে শারদীয় দূর্গা উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। ৩৬টি পূজা মন্ডপ হলোঃ শ্রীশ্রী কালীবাড়ি মন্দির, শ্রীশ্রী গোপাল জিউর আখড়া, শ্রীশ্রী রামকৃষ্ণ মিশন ও আশ্রম, গুহ বাড়ি, মেথা রোড মিনার্ভা পূজা মন্ডপ, গুয়াখোলা কুন্ডুর বাড়ি পূজা মন্ডপ, মজুমদার বাড়ি পূজা মন্ডপ, পুরান বাজার বারোয়ারি পূজা মন্ডপ, দাসপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, নিতাইগঞ্জ পূজা মন্ডপ, পুরান বাজার ঘোষপাড়া পূজা মন্ডপ, জাফরাবাদ পালপাড়া পূজা মন্ডপ,

নিতাইগঞ্জ রণজিৎ দাশের বাড়ি পূজা মন্ডপ, নতুন বাজার পালপাড়া শিতলা মায়ের মন্দির পূজা মন্ডপ, নতুন বাজার ঘোষপাড়া সার্বজনীন দূর্গা মন্ডপ, মেরকারি রোড হরিজন পল্লী দুর্গা মন্ডপ, মহামায়া দত্তবাড়ি দূর্গা মন্ডপ, মৈশালবাড়ি দূর্গা মন্ডপ, শিলন্দিয়া সার্বজনীন দূর্গা মন্ডপ, দামোদরদী কমল কৃষ্ণ মহাশয়ের বাড়ি দুর্গা মন্দির, নতুন বাজার প্রতাপ সাহার দুর্গা মন্দির, উত্তর চর বাকিলা বড় সূত্রধর বাড়ি দূর্গা মন্ডপ, বাবুরহাট স্বগিয় রমেশ দাশের বাড়ি দুর্গা মন্দির, স্বর্ণ খোলা সন্তুষি মায়ের মন্দির,

মহা বীর মন্দির, ডাসাদী বড় সূত্রধর বাড়ি দুর্গা মায়ের মন্দির, পানের গোলা দুর্গা মন্দির, ডাসাদী স্বর্গিয় সুরেশ দাসের বাড়ি দুর্গা মন্দির,পুরান বাজার নবতারা দুর্গাপূজা মণ্ডপ, বালিয়া রাধাগোবিন্দ মন্দির, প্রতাপ সাহা রোড লোকনাথ মন্দির, নিতাইগঞ্জ কার্তিক সাহার বাড়ি দুর্গা মন্দির, শিলন্দিয়া নান্টু দেব বাড়ি দুর্গা মন্দির, দাসপাড়া প্রভাতী সংঘ।

এ বছর নতুন করে জে এম সেনগুপ্ত সড়কের কিছু সংখ্যক উদ্যোমি তরুন একত্রিত হয়ে শহরের কদমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অকাল বোধ সংঘ নামে দূর্গা পূজার প্রস্তুতি নিয়েছে। সব মিলিয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলায় ৩৬ টি পূজার আয়োজন করেছে।

জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রনজিৎ রায় চৌধুরী বলেন, শারদীয়া দূর্গা পূজাকে ঘিরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে সনাতন ধর্মালম্বীদের মাঝে। সম্প্রীতির এ উৎসবকে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ভালভাবে নিচ্ছে না। গত বছরের ন্যায় যেন উৎসব ভুলন্ঠিত না হয় সেদিকে সকলের নজর রাথতে হবে।

হরিবোলা সমিতির সভাপতি ও সাংস্কৃতিক সংগঠক অজয় কুমার ভৌমিক বলেন, বাঙালি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব। এ পূজাকে ঘিরে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা উৎসবে মেতে উঠেছে। তবে সম্প্রীতির এ উৎসবকে ঘিরে সকলের মাঝে কিছুটা সংঙ্কা রয়েছে।

সরকারিভাবে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের ত্রাণ শাখা চাঁদপুরের ২১৯ টির প্রতিটি মন্ডপের জন্যে ৫ শ কেজি হিসেবে ১১০ মে.টন চাল বরাদ্দ দিয়েছে ।

একই রকম খবর