চাঁদপুরে নারী সংগঠনের উদ্যোগে ৪০ জন নারীকে ফ্রি প্রশিক্ষণ প্রদান

স্টাফ রিপোর্টারঃ চাঁদপুরের প্রথম ট্রেনিং বেইজড নারী সংগঠন “বিজয়ী” এর উদ্যোগে ৪০ জন নারীকে ফ্রিতে হ্যান্ড মেইড হিজাব পিন, ব্রোঞ্জ, হেডপিস এর বেসিক প্রশিক্ষন করানো হয়।

২৮ই অক্টোবর শুক্রবার বিকাল ৩ ঘটিকায় চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমীতে চাঁদপুরে নারী উদ্যোক্তাদের সাবলম্বী করতে চাঁদপুরের প্রথম ট্রেনিং বেইজ নারী সংগঠন “বিজয়ী”এই প্রশিক্ষন প্রদান করেন।

বেসিক কোর্সটি প্রশিক্ষন প্রদান করেন ইশরাত জাহান।

বিজয়ী” এর উদ্যোগে “বিজয়ী তৈরিতে বিজয়ী”- এই স্লোগানে ফ্রি প্রশিক্ষন কর্মশালাটি বিজয়ীর ফাউন্ডার তানিয়া ইশতিয়াক খান সভাপতিত্বে পরিচালনা করেন বিজয়ীর এডমিন মারিয়া ইসলাম রাত্রি ও মডারেটর তাহমিনা মীম।

বিজয়ী এর ফেইসবুক গ্রুপে ৫০০০ সদস্য হওয়ায় ৫ কে সেলিব্রেশন করার লক্ষ্যে খান’স ধাবার তৈরি কেক কেটে শুভ কামনা জানিয়ে অতিথির বক্তব্যে বেসিক ব্যাংকের অপারেশন ম্যানেজার আনোয়ার বলেন- বিজয়ীর ফাউন্ডার তানিয়া খান নারীদের জন্য কাজ করছে সত্যি তা প্রশংসার দাবিদার। তানিয়া খান চাচ্ছে নারীদের প্রশিক্ষন দিয়ে নারীদের সাবলম্বী করতে, তারই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের বেসিক ব্যাংক বিজয়ী এর পাশে আছি ইনশাআল্লাহ, স্বল্প ইন্টারেস্টে ব্যবসা পরিচালনার জন্য লোন দেওয়ার ব্যবস্থা করবে বেসিক ব্যাংক।

বিজয়ীর ফাউন্ডার তানিয়া ইশতিয়াক খান আজকের ট্রেইনার এবং উপস্থিত প্রধান সহ অতিথিবৃন্দ, উপস্থিত ট্রেইনিদেরসহ বিজয়ীর সকল সদস্যদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন- নারী-পুরুষে ভেদাভেদ দূর, দেশকে এগিয়ে নেয়া এবং রূপকল্প ২০৪১’ বাস্তবায়নে নারীর ক্ষমতায়ন জরুরি। নারীকে উন্নয়নের মূল ধারায় সম্পৃক্ত করতে দেশে নারী উদ্যোক্তা সৃষ্টি এবং উদ্যোক্তা ব্যবসায়ীদের সহায়তার বিকল্প নেই। তারই ধারাবাহিকতায় বিজয়ী চাঁদপুরের নারীদের নিয়ে কাজ করা প্রথম নারী সংগঠন। এর মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে দেশের নারীদের বিভিন্ন প্রশিক্ষনের মাধ্যমে আত্মনির্ভরশীল করে গড়ে তোলা।

সারাদেশে নারী উদ্যোক্তা সৃষ্টি, সুষ্ঠুভাবে তাদের ব্যবসা পরিচালনা, সম্প্রসারণে সার্বিক সহায়তা প্রদান, দেশের অর্থনীতিতে নারীদের অবদান রাখাসহ নারীর ক্ষমতায়নে কাজ করা।

তানিয়া খান আরও বলেন করোনার সময় থেকে বিজয়ী এর উদ্যোগে প্রথম অনলাইন বেইজ ট্রেনিং শুরু করি এবং করোনার প্রকোপ কমে আসায় জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হওয়ায় এখন আমরা অফলাইনে হাতে কলমে কাজ শিখানো আরম্ভ করি। এই ট্রেনিং গুলো সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করতে যারা সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করছেন তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।

৫কে সেলিব্রেশন উপলক্ষে উপস্থিত উদ্যোক্তার হাতের তৈরি খাবার নিয়ে “ওয়ান ডিস” পাটির আলোকে সান্ধ্যকালিন ভোজের আয়োজন করায় সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তানিয়া খান।

এ সময় উক্ত প্রশিক্ষনে উপস্থিত ছিলেন ওমেনস গ্যালারির ব্যবস্থাপনা পরিচালক পান্না আক্তার, আসফিয়া জাহান,সিমা খান,শাহনাজ আক্তার, তাসলিমা মুক্তার, ইশরাত জাহান, স্বর্না পোদ্দার, রবেয়া আক্তার,
সামিয়া আক্তার, তাহমিনা মীম,সিদরাতুল মুনতাহা,মেহেজাবিন, নীলা, সাম্মি, আয়াতুল ইবনে মায়া, তাসফিয়া নূর, তানিয়া ইসলাম, বর্ষা, সাদিয়া, কাশফি, নিহা, জান্নাত, উম্মে হাবিবা, পুষ্পিতা পুষ্প, মারিয়া ইসলাম রাত্রি, মারজিয়া মৌরি, মাহমুদা, জান্নাতুল ফেরদৌস মিম,মাহমুদা আক্তার, ইশরাত, অনামিকা অনু,ফাবিহা,তানজিলা রহমান ইলা, নসিয়া, শামিয়া খান,
উম্মে খাদিজা, সায়েমা আক্তার আরও অনেক প্রশিক্ষনার্থী।

বিজয়ীর মডারেটর কবি ফয়েজ খান জাহিদ শিকদার সহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

একই রকম খবর