চাঁদপুর জেলা প্রশাসন ও রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির মাইকিং

স্টাফ রির্পোটার : চাঁদপুরে ঘুর্ণিঝড় সিত্রাং এর প্রভাব বেশী পড়েছে মেঘনা নদীর পশ্চিমে মতলব উত্তর উপজেলা থেকে শুরু করে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত ছোট বড় চরাঞ্চলে। সেখানে বসবাসকারী লোকদেরকে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে। মেঘনা উপকূলীয় এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়েছে।

সোমবার (২৪ অক্টোবর) দুপুরের পর থেকেই জেলা প্রশাসনের নির্দেশনার আলোকে জেলা তথ্য অফিস শহরে এবং গ্রামাঞ্চলে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবীরা মাইকিং করে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বসবাসকারী লোকদেরকে সাইক্লোন সেন্টার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উচু ভবনে আশ্রয় নেয়ার জন্য বলা হয়।

সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হজরত আলী বেপারী তার ইউনিয়নের বাসিন্দাদেরকে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, তার ইউনিয়নের চিরার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিলার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইউনিয়ন পরিষদ ভবন, রাজরাজেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাঁশগাড়ী মুজ্জাফরীয়া দাখিল মাদ্রাসা আশ্রয় নেয়ার জন্য খুলে রাখা হয়েছে। সেখানে আশ্রয়ে থাকা লোকজনের জন্য শুকনো খাবারের ব্যবস্থা আছে।

 

একই রকম খবর