পূর্ব জাফরাবাদ প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু!

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর পুরান বাজার পূর্ব জাফরাবাদ এলাকায় প্রবাসীর স্ত্রী পপি আক্তারের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার গভীর রাতে পূর্ব জাফরাবাদ জাকির মেম্বারের বাড়ির দ্বিতীয় তলা থেকে ভাড়াটিয়া কফি আক্তারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ও গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। নিহত পপি আক্তার পচিম জাফরাবাদ শানু সওদাগরের দ্বিতীয় মেয়ে।

তিন বছর পূর্বে প্রবাসী শামীম মাসুদ রানার সাথে পপি আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তিনি বাবার বাড়িতে থাকতেন। পরবর্তীতে পূর্ব জাফরাবাদ জাকির মেম্বারের বাড়ির দ্বিতীয় তলায় বাসা ভাড়া নিয়ে একাই থাকেন।

তার ছেলে সন্তান না হওয়ায় বাড়ির মালিক জাকির মেম্বার প্রায় সময় তারা দেখাশোনা করতেন।
কিন্তু ঘটনার দিন সন্ধ্যায় পপি আক্তার অজ্ঞাত কারণে মারা যাওয়ার পর সে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবারের পক্ষ পুলিশকে জানিয়েছেন।

এই আত্মহত্যা না হত্যা করা হয়েছে তা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে।

এই ঘটনা খবর পেয়ে চাঁদপুর পুরান বাজার ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে আসে।
এই ঘটনায় নিহত পপি আক্তারের বাবা শানু সদাগর জানান, মেয়ে প্রায় সময় স্বামীর সাথে মোবাইল ফোনে ঝগড়া করত। তাই অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনার দিন বারবার তার মোবাইলে ফোন করলে সে রিসিভ না করায় সন্দেহ হলে বাসায় এসে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাই। তবে এই ঘটনায় কোন অভিযোগ নেই আমাদের।

এদিকে পুলিশ জানিয়েছেন, প্রবাসীর স্ত্রী আত্মহত্যার খবর শুনে এসে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে পুলিশ আসার পূর্বেই নাস্তি তার পরিবারের পক্ষ নামিয়ে ফেলেছে। বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তীতে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।

এদিকে স্থানীয় এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেছেন, শানু সদাগরের মেয়ে পপি আক্তার চাকরি মেম্বারের বাড়ি দ্বিতীয় তলায় একা ভাড়া থাকতেন। সেই বাসায় বহিরাগত লোকজনও আনাগোনা ছিল। এদিকে বাড়ির মালিকের সাথে অন্য কোন সম্পর্ক ছিল বলে এলাকার মানুষের ধারণা। কারণ তিনি বাড়িতে বেশি আসতেন। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা রহস্য উন্মোচন করা সম্ভব হবে।

 

একই রকম খবর