লক্ষ্মীপুরে মহিলা মেম্বার ধর্ষণের ঘটনায় তিনজন কারাগারে

স্টাফ রির্পোটার : চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০ নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের ৪,৫,৬ ওয়ার্ডের মহিলা সংরক্ষিত মেম্বার হাসিনা বেগমকে ধর্ষণের ঘটনায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ তিনজনকে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত।

বুধবার ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা মনির শেখ, ছাত্রলীগের নিশান পাটোয়ারী আদালতে গিয়ে জামিন আবেদন করেন।
এ সময় নারী ও শিশু নির্যাতন টার্মিনাল আদালতের বিচারক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার বেগমকে ধর্ষণের ঘটনা রফদফা করতে আসামিপক্ষ চাপ প্রয়োগ করে।

পরে পূর্ব থেকেই তারা ধর্ষণের শিকার মহিলা মেম্বার হাসিনা বেগমের কাছ থেকে আপোষনামায় স্বাক্ষর নিয়ে জামিন আবেদন করে।

কিন্তু বিচারক তা বুঝতে পেরে অভিযুক্ত এই তিন জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

হাসিনা মেম্বার জানান, তার স্বামী বিদেশ থাকার সুবাদে অভিযুক্ত ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম তার সহযোগী নিশাল পাটোয়ারী ও মনির শেখ সম্পত্তি বিক্রি করার প্রলোভন দেখিয়ে ৩৫ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু তারা সম্পত্তি দলিল করে না দেওয়ায় তাদের কাছে বারবার যাওয়ার পর অবশেষে তারা পরিকল্পিত করে কোকের সাথে নেশা মিশিয়ে খাইয়ে দিয়ে ধর্ষণ করে।

এই ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করার পর ওয়ার্ড মেম্বার টিটু সহ বেশ কয়েকজন মামলা তুলে নেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।

অবশেষে তারা জামিন চাইলে আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পেরন করেন।

অভিযোগ রয়েছে ১০ নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা মনির শেখ, ছাত্রলীগের নিশান পাটোয়ারী এলাকার রাম রাজত্ব কায়েম করছে। তারা জোরপূর্বক অনেক মেয়েকে ধর্ষণ করে পার পেয়েছে। অবশেষে মহিলা মেম্বারকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলায় তারা এখন কারাগারে।

একই রকম খবর