সাবেক সাংসদ ড. শামছুল হক ভূইয়ার বিরুদ্ধে দুদুকের মামলা খারিজ

স্টাফ রিপোর্টার: চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, চাঁদপুর-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের নির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর দুইটি মামলা খারিজ (স্কোয়াশ) করে দিয়েছে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ।

আলহাজ্ব ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর ৩টি মামলার মধ্যে দুইটি মামলা তদন্তে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় হাইকোর্ট মামলাটি খারিজ করে দেয়।

গত ১৭ আগস্ট বুধবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করেন। আলহাজ্ব ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।
উল্লেখ্য. ফরিদগঞ্জের গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোহেববুল্লাহ খান, সাবেক সংসদ সদস্য ও কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি প্রকৌশলী মো. শামছুল হক ভূঁইয়া এবং প্রভাষক (নন-এমপিও) মো. বেলায়েত হোসেন খানের বিরুদ্ধে ২০২০ সালের ৯ সেপ্টেম্বর দুদকের সহকারী পরিচালক মো মহাতাব উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দুটি দায়ের করেন।
স্থানীয় ভাবে জানাযায়, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর সাবেক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

তিনি ২০১৬ সালের ১৪ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ৯ মার্চ পর্যন্ত তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে কানাডায় অবস্থান করছেন। তিনি চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার চরহোগলা গ্রামের আবদুল লতিফ এর সন্তান।

তিনি অবসর জীবনে স্থানীয় রাজনিতিতে সম্পিক্ত হতে এবং চাঁদপুর-৪ (ফরিদগঞ্জ) আসনে সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হবার প্রত্যাশায় তার পথ থেকে সরিয়ে দিতে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও চাঁদপুর-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়ার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক ভাবে ৩টি মামলা রুজু করায়।

ইকবাল মাহমুদ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চেয়ারম্যান দ্বায়িত্ব পালনকালে ২০২০ সালের ৯ সেপ্টেম্বর দুদকের সহকারী পরিচালক মোঃ মহাতাব উদ্দিন বাদী করে জেলা কার্যালয় কুমিল্লায় মামলা দুটি দায়ের করেন। এরপূর্বে ২০১৯ সালে তাঁর মালিকানাধীন অ্যাপোলো গ্রুপের বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কোটি কোটি টাকার অবৈধ লেনদেনের অভিযোগ আরেকটি মামলা দায়ের করায়।

এদিকে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, চাঁদপুর-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের নির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দুইটি মামলা খারিজ করে দিয়েছে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ কর্তৃক খারিজ হওয়ায় খবরে শুকরিয়া আদায় করে প্রিয় নেতাকে অভিনন্দন জানান। বর্তমানে ফরিদগঞ্জে নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের মাঝে খুশির জোয়ার বইছে।

এ বিষয়ে সাবেক সাংসদ শামসুল হক ভূঁইয়া বলেন, দুদকে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ সবই বেইজলেস (ভিত্তিহীন)। এর কোনো সত্যতা নেই। কেউ যদি দুদকে কোনো অভিযোগ করেন, তাদের উচিত প্রাথমিকভাবে সেই অভিযোগের সত্যতা যাচাই করা। এভাবে ব্যক্তি কারো ইঙ্গীতে হয়রানি ও মানহানি না করা।

একই রকম খবর