আগস্টে ১৮ বছর বয়সীদের টিকার নিবন্ধন শুরু

১৮ বছর করা হচ্ছে করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়ার সর্বনিম্ন বয়স। আগামী ৮ আগস্ট থেকে ১৮ বছর ও তার বেশি বয়সীদের টিকার নিবন্ধন শুরু হবে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যে টিকার টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ৩৫ থেকে কমিয়ে ২৫ করা হয়েছে।

টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ১৮ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আজ বৃহস্পতিবার বিকালে এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, আজ বৃহস্পতিবার টিকা নেওয়ার সর্বনিম্ন বয়স ২৫ বছর নির্ধারণ করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী ইতোমধ্যে নিবন্ধনও শুরু হয়ে গেছে। টিকার সুরক্ষা প্ল্যাটফর্ম ও অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন করা যাচ্ছে। এর পরের ধাপে টিকা গ্রহীতার সর্বনিম্ন বয়স ১৮ নির্ধারণ করা হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ বিষয়ে বলেন, যাদের বয়স আগামী ৮ আগস্ট থেকে ১৮ বা তার চেয়ে বেশি হবে তারা টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারবেন। ওই দিন থেকে ১৮ বছর বয়সীদের নিবন্ধন শুরু হবে। জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) যাদের আছে অনলাইনে তারা নিবন্ধন করতে পারবেন।

কিন্তু এনআইডি যাদের নেই তাদের ক্ষেত্রে কী হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোনো নাগরিকের বয়স ১৮ বছর হলেই তিনি করোনার টিকা নেওয়ার জন্য উপযুক্ত হবেন।

তবে এনআইডি যাদের নেই তারা সংশ্লিষ্ট তাদের স্থানীয় টিকাদান কেন্দ্রে সরাসরি উপস্থিত হয়ে টিকা নিতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট এলাকার চেয়ারম্যান, মেয়র বা উপজেলা পরিষদ তথা স্থানীয় জনপ্রতিনিধির প্রত্যয়নপত্র লাগবে।

১৮ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সীরা টিকা নেওয়ার পর তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র বা এনআইডি দেওয়ার ব্যাপারে সুপারিশ করা হবে বলেও উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

একই রকম খবর