আবাসিকে অবৈধ দেহ ব্যবসার অভিযোগে চাঁদপুরে হোটেল শেরাটনে অভিযান

স্টাফ রিপোর্টারঃ চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন জানিয়েছেন,শহরের হোটেল শেরাটন আবাসিকে অবৈধ দেহ ব্যবসার অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছেন।

১৩ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি মোঃ নাসিমের দিক-নির্দেশনায় এ অভিযানে অংশ নেন চাঁদপুর সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর(তদন্ত) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ,ইন্সপেক্টর(নিঃ) অপারেশন্স এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং মুহাম্মদ মুরশেদুল আলম ভূঁইয়া, এস আই বিপ্লব নাহা,পলাশ বড়ুয়া, এএসআই সেলিম মিয়া সহ সঙ্গীয় ফোর্স।

এ ব্যপারে চাঁদপুর সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর(তদন্ত) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ জানান, হোটেল শেরাটন আবাসিকে অবৈধ দেহ ব্যবসার অভিযোগ পেয়েছি। তাই ওসি স্যারের নির্দেশে আমরা অভিযান পরিচালনা করেছি।তবে এই অভিযানে কাউকে আটক করতে পারিনি। এদিকে অভিযান চলাকালীন সময়ে হোটেল শেরাটন আবাসিকের প্রোপ্রাইটার মোঃ বাবুল শেখ পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তরিঘরি করে পালিয়ে যায়।

জানা যায়, শহরের জে.এম. সেনগুপ্ত রোডের পূরবী মার্কেটের ৩য় ও ৪র্থ তলায় হোটেল শেরাটন আবাসিক নামে একটি হোটেল পরিচালনা হয়।যেখানে অবাধে অবৈধভাবে রমরমা দেহ-ব্যবসা পরিচালনা করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে।হোটেলের প্রোপাইটার মোঃ বাবুল শেখ রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করে এসবের আশ্রয় পশ্রয় দিতো বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তারা।

আর এসব অভিযোগকে সামনে রেখেই চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন এই অভিযান পরিচালনা করেছে।এদিকে ওসি নাসিমের এই অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছেন চাঁদপুরের সচেতন মহল।তার হাত ধরেই শহরের অবৈধ দেহ ব্যবসা বন্ধ হবে বলে মনে করছে সচেতন মহল।

 

একই রকম খবর