আমেরিকায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে ‘ফোবানা’ নেতৃবৃন্দের সাক্ষাত

আমেরিকায় ‘ফোবানা’র ৩৫তম সম্মেলনে যোগদানের দাওয়াত দেয়ার জন্য সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সাথে সাক্ষাত করেন।

গত শুক্রবার (২৬ফেব্রুয়ারি,২০২১খ্রি.) সন্ধ্যা ৭টায় আমেরিকার ওয়াশিংটন ডিসি’র হোটেল শেরাটনে এ সাক্ষাত অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মন্ত্রী সম্মেলনে যোগদানের দাওয়াত দেয়ার জন্য ‘ফোবানা’ নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আমি আপনাদের দাওয়াত গ্রহণ করলাম। যদি সে সময় রাষ্ট্রীয় কোনো কাজে ব্যস্ত না থাকি তাহলে অবশ্যই আসার চেষ্টা করবো’।

উপস্থিত নেতৃবৃন্দ ‘ফোবানা’র ৩৫তম সম্মেলন উদযাপন উপলক্ষে ৩দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন ২০২১ খ্রিস্টাব্দের সেপ্টেম্বর মাসের ২, ৩ ও ৪ তারিখে আমেরিকার রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি’র সেভেন স্টার হোটেল খ্যাত ‘গেলর্ড হোটেল এন্ড ন্যাশনাল কনফারেন্স’ নামক ভেন্যুতে। সেই সাথে এতে ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০বছর সুবর্ণ জয়ন্তী’, এককালের প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ‘ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শতবর্ষ’, ‘জাহাঙ্গীর নগর বিশ^বিদ্যালয়ের ৫০বছর’ পালনসহ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নানা গুরুত্বপূর্ণ ও মনোমুগ্ধকর বিষয়ের আয়োজন থাকবে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রীকে অবহিত করেন।

সুদূর আমেরিকায় প্রবাসী বাঙ্গালীরা মাটি ও মানুষের টানে এ ধরনের দেশপ্রেমমূলক বিষয় অন্তর্ভূক্ত রাখার পরিকল্পনা গ্রহণ করায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ‘ফোবানা’ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি ‘ফোবানা’র ৩৫তম সম্মেলন সুষ্ঠুভাবে সফল ও সার্থক করার জন্য তাঁর অভিজ্ঞতার আলোকে উপস্থিত সাক্ষাত প্রদানকারীদের নানা দিক নির্দেশনামূলক পরামর্শ দেন। অতীতে ‘ফোবানা’র জন্য তিনি যেভাবে সকলকে সাথে নিয়ে কাজ করেছেন সেভাবে সকলকে নিয়ে কাজ করার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান। এ সময় তিনি দেশে-বিদেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়েও তাঁদের সাথে সামগ্রিক আলোচনা করেন।

সাক্ষাতের প্রারম্ভে ‘ফোবানা’র পক্ষ থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছায় অভিসিক্ত করা হয়। প্রায় ঘন্টাব্যাপী সাক্ষাতের সময় ‘ফোবানা’ প্রতিনিধিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ‘ফোবানা’র আহ্বায়ক জি রাসেল, ৩৫তম ‘ফোবানা’ সম্মেলন উদযাপন কমিটির প্রধান পৃষ্ঠপোষক কবির পাটওয়ারী, ‘ফোবানা’র যুগ্ম আহ্বায়ক পারভীন পাটওয়ারী মনি, মিঃ জেবা রাসেল, মিসেস মালা, মিঃ করিম, মিঃ আলম এবং মিঃ রোমিও।

এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ্য, আমেরিকায় প্রবাসী বাঙ্গালীদের সবচে’ বড় সেবামূলক সংগঠন ‘ফোবানা’। উত্তর আমেরিকার (কানাডাসহ) রেজিষ্ট্রেশনভূক্ত ৪০টি সংগঠন নিয়ে গঠিত হয়েছে ‘ফোবানা’। ‘ফোবানা’ এসব সংগঠনের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রক সংগঠন হিসেবে অত্যন্ত সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে চলেছে। সেবার মহান মানসিকতায় ‘ফোবানা’ আজ তার কর্মদক্ষতায় সর্বমহলে বিশেষভাবে সমাদৃত।

এখানে স্মরণ করা যেতে পারে, ‘ফোবানা’ প্রতিষ্ঠার প্রধান উদ্যোক্তাদের মধ্যে অন্যতম একজন হচ্ছেন বাংলাদেশের বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি একসময় ‘ফোবানা’র সভাপতি ছিলেন এবং তিনি তাঁর সেই দায়িত্ব অত্যন্ত নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে পালন করেন।

একই রকম খবর