চাঁদপুর সদরের ইউপি চেয়ারম্যানদের সাথে সনাকের মতবিনিময়

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : যেখানে স্বচ্ছতা থাকবে সেখানে জবাবদিহিতা নিশ্চিত হয়ে যায়। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দ সকল কাজ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বজায় রেখে করবেন বলে আমরা প্রত্যাশা করছি। পরিষদের সকল প্রকল্পের কাজ ইউনিয়ন পোর্টালে প্রতিনিয়ত আপডেট করবেন। সরকার স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে ফোকাস করছে। কারণ স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলো সব সময় সাধারণ জনগণকে নিয়ে কাজ করে।

কথাগুলো বলেছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) মোঃ মঈনুল হাসান।

তিনি আরও বলেন, আমি যখন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছিলাম তখন নারী ইউপি মেম্বারদের কাছ থেকে বহু অভিযোগ আসতো। কিন্তু এখন আর এ অভিযোগগুলো আসে না। কারণ নারীরা এখন অনেক বেশি সচেতন। তারা তাদের অধিকারের জায়গা থেকে অনেক বেশি স্বচ্ছ। এখন নারীরা ইউনিয়নের অনেক কাজে মূখ্য ভূমিকা পালন করছে। তিনি আরও বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ একটি স্বয়ংসম্পন্ন প্রতিষ্ঠান। সরকারের উন্নয়নমূলক কার্যক্রমগুলোকে আরও বেশি দৃশ্যমান করতে হবে। তিনি এধরণের মতবিনিময় সভা আয়োজন করার জন্য সনাক-টিআইবিকে ধন্যবাদ জানান।

জনপ্রত্যাশা পূরণে চাই স্বচ্ছ, জবাবদিহি ও গণঅংশগ্রহণমূলক স্থানীয় সরকার-এই শ্লোগান নিয়ে সচেতন নাগরিক কমিটি-সনাক ও টিআইবি চাঁদপুরের আয়োজনে বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সম্মেলন কক্ষে উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার), উপজেলা নির্বাহী অফিসার, চাঁদপুর সদর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দের সাথে সনাক চাঁদপুরের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন সনাক সভাপতি কাজী শাহাদাত। প্রধান অতিথি হিসেবে উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) মোঃ মঈনুল হাসান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপজেলার নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা বলেন, জনগণের দোরগোঁড়ায় সেবা পৌঁছে দেবার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা আমরা কাজের মাধ্যমে প্রমান করতে চাই। ইউনিয়ন পরিষদের প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বজায় থাকে সেদিতে খেয়াল রাখার জন্য তিনি চেয়ারম্যানদের প্রতি আহŸান জানান। ইতিমধ্যে সকলের মতামতের ভিত্তিতে আমরা প্রতিবন্ধীদের নিয়ে একটি স্কুল করার পরিকল্পনা করেছি। স্কুলের নাম স্বপ্ন স্কুল। তিনি আরও বলেন, মানুষ তার অধিকার সম্পর্কে সচেতন হবে সেদিন বেশি দূরে নয়। সদর উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের সাধারণ জনগণের সেবার মান বৃদ্ধি করার জন্য সনাক-টিআইবি যেকোন উদ্যোগ গ্রহণ করবে আমরা তাতে সহযোগিতা করে যাবো। তিনি এধরণের মতবিনিময় সভা আয়োজন করার জন্য সনাক-টিআইবিকে ধন্যবাদ জানান।

সভাপতির বক্তব্যে সনাক সভাপতি কাজী শাহাদাত বলেন, আজকের সভায় অনেক দিকনির্দেশনামূলক আলোচনা হয়েছে। আমরা আশা করছি ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধিতে ইউপি কর্তৃপক্ষ আরও বেশি ভূমিকা পালন করবে। তিনি আরও বলেন, পারস্পরিক সহযোগিতার মধ্য দিয়ে দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলন আরও জোরদার করা সম্ভব। তিনি মতবিনিময় সভায় উপস্থিত হওয়ার জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানান।

সনাকের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ মোশারেফ হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ১৪নং রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হযরত আলী বেপারী, ৬নং মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মানিক, ১৩নং হানারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঃ ছাত্তার রাড়ী ও ০১নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নাহিদ সুলতানা (রনি)। স্বাগত বক্তব্য এবং সভার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য অবহিতকরণ করেন সনাক-চাঁদপুর স্থানীয় সরকার বিষয়ক উপ-কমিটির আহŸায়ক মোঃ আব্দুল মালেক। ইউনিয়ন পরিষদের সেবায় স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা এবং জনঅংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে সনাক-এর উদ্যোগ ও সফল দৃষ্টান্ত উপস্থাপন বিষয়ক বক্তব্য রাখেন টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার মোঃ মাসুদ রানা।

মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মেহেদী হাসান, মোঃ ছামিউল ইসলাম, সনাক সদস্য আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন খান, প্রফেসর মনোহর আলী, মোঃ আব্দুস সামাদ দেওয়ান, অ্যাড. পলাশ মজুমদার, ৭নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব তাছলিমা আক্তার, ৬নং মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আবু বকর মানিক, বিভিন্ন ইউপি সদস্যবৃন্দ, ইয়েস-ইয়েস ফ্রেন্ডস গ্রæপের সদস্যবৃন্দ ও টিআইবি কর্মীবৃন্দ।

একই রকম খবর

Leave a Comment