এইচএসসি ও সমমানে চাঁদপুরে ১৭ হাজার ৭৭৮জন পরীক্ষার্থী অংশ নিবে

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট ঃ আজ ৬নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে এইচএসসি, মাদ্রাসা বোর্ডের আলিম ও ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা ও ভোকেশনার পরীক্ষা।

সারাদেশের মতো অভিন্ন সময় ও নিয়মনীতিতে সকাল ১০টায় এ পরীক্ষা শুরু হবে। এবার চাঁদপুরে ২০২২ শিক্ষাবর্ষের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থী অংশ নিবে ১৭ হাজার ৭৭৮জন পরীক্ষার্থী। কেন্দ্র রয়েছে ৫২টি।

সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার লক্ষে ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি ও সরকারি দিক নিদের্শনা মতোবেক ৫৮টি নীতিমালা অনুসরণ বা মেনচলার জন্যে গত ২৬ অক্টোবর সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বশির আহমেদের সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংশ্লিষ্ট সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রতিষ্ঠান প্রধানগণের উপস্থিতিতে আসন্ন এইচএসসি ও সমানের পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার লক্ষে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এ গুরুত্বপূর্ণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বছর চাঁদপুর জেলার ৮ উপজেলায় পরীক্ষার্থীর সংখ্যা এইচএসসিতে ৫২ কেন্দ্রে এইচএসসি, আলিম, বিএম ও এইচএসসি ভোকেশনালে ২০২২ পরীক্ষা শুরু হবে।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের শিক্ষা শাখা থেকে জানা যায়, জেলায় এইচএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ হাজার ৭শ’ ৮৫জন এবং কেন্দ্র ৩৪টি, মাদ্রাসা বোর্ডের আলিম পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ হাজার ৯শ’ ৩০জন এবং কেন্দ্র ১১টি। ব্যবসা ব্যবস্থাপনা পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯শ ৮৪জন ও কেন্দ্র ৬টি এবং ভোকেশনাল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭৯জন ও কেন্দ্র ১টি। এইচএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরিচালনার জন্যে জেলা প্রশাসন কর্তৃক অনেকগুলো প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

শিক্ষা বোর্ডগুলোর নির্দেশনা অনুযায়ী, পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে হবে। অনিবার্য কারণে দেরিতে প্রবেশ করতে দিলে সেই পরীক্ষার্থীর রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, বিলম্বের কারণ ইত্যাদি একটি রেজিস্ট্রারে লিখে ওই দিনই সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডে প্রতিবেদন দিতে হবে। আর কোন সেট প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা হবে, তা পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে জানানো হবে। কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (কেন্দ্র সচিব) ছাড়া অন্য কেউ মুঠোফোন বা ইলেকট্রনিক যন্ত্র নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাও ছবি তোলা যায় না, এমন একটি সাধারণ ফোন ব্যবহার করতে পারবেন।

চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান বলেন, এবার চাঁদপুর জেলায় পরীক্ষার কেন্দ্রগুলোর ১০০ গজের মধ্যে ১৪৪ধারা জারি থাকবে। চাঁদপুর শহরের কেন্দ্রগুলোতে জেলা প্রশাসক নিজেই ১৪৪ধারা নির্দেশনা জারি করবেন।

উপজেলার গুলো নির্বাহী অফিসারগণরা ১৪৪ধারা নির্দেশনা জারি করবেন। এছাড়া তিনি বলেন প্রশ্নপত্র নেয়ার ক্ষেত্রে খুবই সতর্ক অবলম্বন করা হবে। বোর্ডের নিয়মনুযায়ী ২৫ মিনিট পূর্বেই কেন্দ্রে প্রশ্নপত্র যাবে।

একই রকম খবর