চাঁদপুরে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম বলেছেন, ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসন সর্বদাই প্রস্তুত রয়েছে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধর্মীয় সংখ্যালঘুরা নিরাপদে যাতে ভোট দিতে পারে, সে জন্য পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। হিন্দু সম্প্রদায়ের কোন সমস্যা হলে সরাসরি আমাকে জানাবেন। ধর্ম যার যার, রাষ্ট্র সবার। স্বাধীন বাংলাদেশে আপনারা গণতান্ত্রিকভাবে আপনাদের মূল্যবান ভোট প্রদান করবেন। কেউ কোন ধরনের হুমকি-ধমকি দিলে কোন ছাড় পাবে না। কঠোর হস্তে সন্ত্রাসীদেরকে দমন করা হবে। নির্বাচনের পূর্বে ও পরে জেলার প্রত্যেকটি উপজেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের পরিবারের সদস্যদেরকে নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব আমাদের। আপনারা আমাদেরকে সার্বিক তথ্য দিয়ে যোগাযোগ রাখবেন।

শনিবার ( ২৪ নভেম্বর) চাঁদপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে বেলা ১১টায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চাঁদপুর জেলা শাখার ও উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোঃ মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি এড. বিনয় ভূষণ মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক এড. রনজিত রায় চৌধুরী, উপদেষ্টা অজয় ভৌমিক, অধ্যাপক রনজিত বণিক, রাধাগোবিন্দ ঘোষ, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি জয়রাম রায়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লক্ষণ চন্দ্র সূত্রধর, মতলব দক্ষিণ উপজেলার সভাপতি গনেশ ভৌমিক, মতলব উত্তর উপজেলার সভাপতি রাধেশ্যাম সাহা চান্দু, কচুয়া উপজেলার সভাপতি প্রিয়তোষ পোদ্দার, হাজীগঞ্জ উপজেলার সভাপতি মিঠুন ভদ্র, ফরিদগঞ্জ উপজেলার সহ-সভাপতি হিতেষ শর্মা, হাইমচর উপজেলার সভাপতি অজয় মজুমদার, শাহারাস্তি উপজেলার সভাপতি শ্যামল বন্ধু ভট্টাচার্য্য, চাঁদপুর শহর কমিটির সহ-সভাপতি লিটন সাহা, জেলার দপ্তর সম্পাদক গৌতম রায়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি তপন সরকার,সদস্য বিবেক লাল মজুমদার, মতলব দক্ষিণ উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুধমা চন্দ্র সাহা, মতলব উত্তর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক রোটা. শ্যামল চন্দ্র দাসসহ জেলা ও প্রতিটি উপজেলার নেতৃবৃন্দ।

একই রকম খবর

Leave a Comment