ওসির নির্দেশে পশ্চিম শ্রীরামদীর বখাটে মেহেদীকে মুছলেখা দিয়ে মুক্তি

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট : চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহতলী কামিল মাদ্রাসার নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ইভটিজিং এর মৌখিক অভিযোগে মডেল থানার ওসির নির্দেশে সদর উপজেলার পশ্চিম শ্রীরামদীর বখাটে কিশোর গ্যাং এর সদস্য জনৈক মেহেদীকে আটক করা হয়েছে ।

গত ১৯ নভেম্বর চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ বখাটে কিশোর গ্যাং এর সদস্য জনৈক মেহেদীকে আটক করে । পরে ছাত্রীকে ইভটিজিং করার অপরাধ স্বীকার করায় অতপর আটক মেহেদীকে ভবিষতে আর এ ধরনের কাজ করবে না মর্মে মুছলেখা দিয়ে মুক্তি দেওয়া হয় । বিষয়টি দৈনিক চাঁদপুর খবর পত্রিকাকে নিশ্চিত করেন চাঁদপুর মডেল থানা ওসি আব্দুর রশিদ ।

জানা গেছে, গত ১৮ নভেম্বর সদর উপজেলার হামানকর্দ্দী নিবাসী শাহতলী কামিল মাদ্রাসার নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে জনৈক বখাটে মেহেদী কর্তৃক ইভটিজিং করছে মর্মে এক অভিভাবক মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে মৌখিক ভাবে ম্যাসেন্জারে জানায় ।

বিষয়টি প্রথমে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ওই বখাটে মেহেদীর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তার বড় ভাই পরিচয়দানকারী জনৈক ব্যক্তি মাদ্রাসার স্টাফ ও কর্তৃপক্ষকে হুমমি-ধামকি দেয়। উল্টো মোবাইলে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় ।

পরে বাধ্য হয়ে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদকে মোবাইলে অবহিত করেন । বিষয়টি জানান ১২ ঘন্টার মধ্যে ওসি আব্দুর রশিদ বখাটে মেহেদীকে মোবাইল নাম্বার ট্যাক করে ঠিকানা ও তার অবস্থান নিশ্চিত করেন এবং তাকে আটক করে আইনী ব্যবস্থা নেন ।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদের নির্দেশে তাৎক্ষনিক ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করায় শাহতলীর অভিভাবক মহল স্বাগত জানিয়েছে । সেই সাথে ওসি মহোদয়কে ধন্যবাদ জানিয়েছে ।

এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদ দৈনিক চাঁদপুর খবরকে জানান,শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশেপার্শ্বে কোন বখাটে ইভটিজিং কিংবা মাস্তানী করলে সাথে সাথে থানায় পুলিশকে জানাবেন । আমরা জানার সাথে সাথে আইনী ব্যবস্থা নিবো ।

এ ব্যাপারে চাঁদপুরের সুযোগ্য পুলিশ সুপার মো:মিলন মাহমুদ স্যারের কঠোর নির্দেশানা রয়েছে ।এ ব্যাপারে জিরো ট্রলারেন্স থাকবে চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ ।

 

একই রকম খবর