কচুয়ায় তেতৈয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে বসেছে অবৈধ গরুর হাট

স্টাফ রির্পোটার ॥ কচুয়া উপজেলার তেতৈয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে সরকারি ভাবে ইজার না নিয়ে সরকারি কোন ধরনের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে প্রশাসনকে বৃদ্ধাগুলি দেখিয়ে ক্ষমতার প্রভাব খাঁটিয়ে অবৈধ গরুর হাট বসছে।

এ নিয়ে অভিভাবক ও স্থানীয়দের মাঝে তীব্র ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করেছে। গতকাল সোমবার সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে কচুয়া উত্তর ইউনিয়নের ৬টি বাজারে গরুর হাটের ইজারা দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। ইজারা প্রাপ্ত বাজারগুলো হলো উজানী বাজার, খিড্ডা বাজার, সিংআড্ডা বাজার, আ: রব মোল্লা সুপার মার্কেট, তেতৈয়া আদর্শ মোল্লা মার্কেট ও তেতৈয়া খামার বাড়ি সংলগ্ন বাজার এবং উত্তর নোয়াগাও বায়তুল নুর মসজিদ মাঠ।

ইজারা প্রাপ্ত মার্কেট গুলোর বাহিরে স্থানীয় যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন ও শফিকুর রহমান তেতৈয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম পাটওয়ারীর যোগসাজসে রমরমা হাট বসিয়েছে। স্থানীয়রা জানান, প্রধান শিক্ষক শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করার জন্য শিক্ষাঙ্গনে অর্থের বিনিময়ে প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম এ গরুর হাট বসিয়েছে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম পাটওয়ারী জানান, আমাকে না জানিয়ে তারা স্কুল মাঠে গরুর হাট বসিয়েছে। গরুর হাট বসানোর বিষয়ে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে কিনা বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়টি এড়িয়ে যান।

কচুয়া উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. আখতার হোসাইন বলেন, স্থানীয়রা আমাকে বিষয়টি অবহিত করলে গরুর হাট বন্ধ করার জন্য আমি ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে বলেছি এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করেছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোতাছেম বিল্যাহ জানান, কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরুর হাটের ইজারা প্রদান করা হয়নি। যদি কেউ কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরুর হাট বসায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একই রকম খবর