করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু, কচুয়ায় দাফনে গ্রামের কেউ সহযোগীতা করতে আসেনি !

কচুয়া প্রতিনিধি : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার গোহট উত্তর ইউনিয়নের পালগিরী ৮৩ নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি শাহাদাত হোসেন মানিক সরকার (৫২) মঙ্গলবার (১৯মে) সকাল ৫টার দিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে নিজ বাড়িতে মৃত্যু বরণ করেন, ইন্নালিল্লাহে”””” রাজিউন। মৃত মানিক ঢাকার একটি গার্মেন্টসে ব্যবস্থাপনার চাকুরী করতো।

তিনি গত শনিবার (১৬মে) করোনা উপসর্গ নিয়ে বাড়িতে আশার পর তার এই মৃত্যু হয়। আমাদের এ প্রতিনিধির সরজমিন রিপোর্ট, মানিক সরকারের মৃত্যুর পর দাফন এবং কবর খোঁড়ার জন্য গ্রামের কেউ সহযোগীতা না করায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হাই মুন্সী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ দপ্তর সম্পাদক মোঃ কবির হোসেন, ইউপি সদস্য আলমগীর হোসেন, চেরাজুল হক, যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান জামশেদ, শিপন মাস্টার ও ছাত্রলীগ নেতা মোশারফ হোসেন কবর খুঁড়াসহ যাবতীয় সরঞ্জাম ব্যবস্থার মধ্যে উপজেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড সুপার ভাইজার মোঃ হাছান মজুমদার, মডেল কেয়ারটেকার মাওঃ মোফাজ্জল প্রমূখ স্বাস্খ বিধি মোতাবেক দাপন কার্য্য সম্পূর্ণ করে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন এবং মৃত ব্যক্তির পরিক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করেন, উপজেলা স্বাস্খ কমপ্লেক্সের ডাঃ ফাতেমা খাতুন (এমটি ল্যাব), ডাঃ বোরহানউদ্দিন (এমটি ইপিআই) ও স্যানেটারী ইন্সপেক্টর সতেন্দ্র নাথ মজুমদার।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, কচুয়া থানার এসআই মোঃ তাজুল ইসলাম ও পালগীরি কমিউনিটি ক্লিনিক কর্মকর্তা জহির হোসেন। মরহুমের জানাজার ইমামতি করেন, উপজেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শিক্ষক গোলাম সরোয়ার। শাহাদাত হোসেন মানিক মৃত্যুকালে স্ত্রী ও ৩পুত্র সন্তানসহ বহু আত্মীয় স্বজন এবং শুভাকাংখী রেখে যান। মৃত ব্যক্তির পালগীরি গ্রামের সরকার বাড়ীটি স্বাস্খ বিধি মেনে চলার জন্য উপজেলা আইনশৃংখলা বাহীনির নির্দেশ মোতাবেক লকডাউন ঘোষনা পূর্বক লাল পাতাকা জুলিয়ে দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, মৃত শাহাদাত হোসেন মানিক একজন দানশীল ভালো মনের মানুষ ছিলেন। অথচ তার এই মৃত্যুর জানাজা অনুষ্ঠানে কোনো মসজিদের ইমাম, আলেম-ওলামা গনের অংশগ্রহণ তো পরের কথা উল্লেখিত দাফন কার্যক্রমের লোকজন ছাড়া অন্য কেউ বিন্দুমাত্রও সহযোগীতা করেনি। এমনকি যে, মসজিদে তার বহু অনুদান রয়েছে সেই মসজিদের লাশ বহনের খাটটি পর্যন্ত দেয়নি এবং তার ভাগ্যে জোটেনি বলে ওই দাফন কার্য্য পরিচালনা কারীরা দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

একই রকম খবর