চাঁদপুরে কে হচ্ছেন ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী?

স্টাফ রিপোর্টার : যৌথভাবে আন্দোলন, নির্বাচন ও পরবর্তীতে সরকার (নির্বাচনে জয়লাভের পর) গঠনের পথে এখন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সম্ভাব্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এমন সমীকরণে নিজেদের মধ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচন নিশ্চিত করতে একমত এখন বিএনপি। তবে নির্বাচনকালীন সমীকরণে প্রার্থী নিয়ে এখনো চূড়ান্ত রূপরেখা না এলেও আসনভিত্তিক প্রার্থীদের নিয়ে সর্বত্র আলোচনা-সমালোচনা অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে চাঁদপুরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী কে হচ্ছেন, এ নিয়ে পুরো জেলার রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোচনা অব্যাহত রয়েছে। তবে চাঁদপুর জেলার ৫টি আসনে মধ্যে ১টি আসন শেষ পর্যন্ত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট পাচ্ছে বলে চাউর হচ্ছে। আর সে আসনটি ধারণা করা হচ্ছে চাঁদপুর-৩ (চাঁদপুর সদর-হাইমচর) আসন।

এ আসনেই ঐক্যফ্রন্টের বিএনপি ছাড়া অন্য দলের ৪ জন প্রার্থী রয়েছেন। তারা হলেন- সাবেক সংসদ সদস্য ও এলডিপি নেতা প্রফেসর এম আব্দুল্লাহ, গণফোরাম ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা অ্যাড. সেলিম আকবর, নাগরিক ঐক্যর কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতা অ্যাডভোকেট ফজলুল হক সরকার ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির এসএমএম আলম।

এদিকে চাঁদপুর-৩ আসনটিতে একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপির একক প্রার্থী অনেকটাই নিশ্চিত বলে জানা গেছে। জেলা বিএনপির আহবায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকই হচ্ছেন একক প্রার্থী।

যদিও বিএনপিতে আরো বেশ কয়েকজন প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন। তারা হলেন- সাবেক সংসদ জিএম ফজলুল হক, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি ও চাঁদপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান সফিকুর রহমান ভূঁইয়া, সাবেক সংসদ সদস্য রাশেদা বেগম হীরা ও নির্বাহী কমিটির সদস্য এসএম কামাল উদ্দিন।

অপরদিকে ঐক্যফ্রন্টের ৪ প্রার্থীর মধ্যে বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির এসএমএম আলম বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম নেতা। অপর প্রার্থী কর্নেল (অব.) অলি আহম্মেদের এলডিপির নেতা প্রফেসর এম আব্দুল্লাহ (বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য)। যদিও এলডিপি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে সরাসরি এখনো যোগ দেয়নি। তবে ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আসন ভাগাভাগিতে একমত হলেই চাঁদপুরে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য প্রফেসর এম আব্দুল্লাই হবেন এলডিপির প্রার্থী এমন সম্ভাবনা রয়েছে ।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিলের আগেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে আরো বেশ কিছু রাজনৈতিক দল যোগ দেবে বলে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা আশাবাদী। রাজনৈতিক দলের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলে চাঁদপুরে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীর সংখ্যাও আরো বৃদ্ধি পাবে বলে জানা গেছে। তারপরই কেবল চাঁদপুর-৩ আসনে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীই চূড়ান্ত হতে পারে।

যদিও চলমান ঐক্যফ্রন্ট কেন্দ্রিক রাজনৈতিক সমীকরণে চাঁদপুরে বিএনপি একক প্রার্থী দেবে, না ঐক্যফ্রন্ট কেন্দ্রিক প্রার্থী দেবে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে শেষ পর্যন্ত চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনে শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক প্রার্থী না হলে অবাক হওয়ার কিছুই নেই বলে অভিমত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

উল্লেখ্য, সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত ১৩ই অক্টোবর বিএনপিসহ সরকার বিরোধী দলগুলোর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে যৌথভাবে আন্দোলন, নির্বাচন ও পরবর্তীতে সরকার (নির্বাচনে জয়লাভের পর) গঠনের পথে এখন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

একই রকম খবর

Leave a Comment