চাঁদপুরের মেঘনা নদী থেকে আবিদ বেপারী নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

স্টাফ রির্পোটার : চাঁদপুর মেঘনা নদী থেকে আবিদ বেপারী নামে ৬০ বছর বয়সী এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে নৌ থানা পুলিশ।

রবিবার চাঁদপুর পুরান বাজার হরিসভা রোড এলাকার মেঘনা নদীতে লাশটি ভেসে থাকতে দেখে জেলেরা পুলিশকে জানান।
খবর পেয়ে নৌ থানার এসআই রেদওয়ান স্টিল বডি ট্রলার নিয়ে নদীর মাঝখান থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

নদীতে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ পাওয়ার ঘটনাটি লাইভ ভিডিও প্রচার করার সাথে সাথেই তার ছেলে মাসুদ কাতার থেকে দেখতে পেয়ে বাবার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে। পরে ওই প্রতিবেদককে কাতার থেকে ফোন করে তার বাবার নাম পরিচয় জানান।
নদী থেকে উদ্ধার হওয়া আবিদ বেপারী ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৬ নাম্বার রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের তিন নাম্বার ওয়ার্ডের কাউনিয়া গ্রামের মৃত কেরামত আলীর পুত্র।

মৃত আবিদ বেপারির ছেলে প্রবাসী মাসুদ জানান, এক সপ্তাহ পূর্বে তার বাবা ঢাকায় ক্রয় কৃত জায়গার জটিলতা নিরসন করার লক্ষ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। পরে তার খোঁজখবর না পাওয়ায় ফরিদগঞ্জ থানার গিয়ে তার মা একটি নিখোঁজ ডায়েরি করেন। দুর্বৃত্তরা তার বাবাকে হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন।

এদিকে লাশটি পুলিশ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্ত জন্য মর্গে প্রেরণ করেন।

মারা যাওয়ার সময় মৃত আবিদ বেপারী শরিরে একটি ফতুয়া ও প্যান্ট পরা ছিল। তার হাতে ঘড়ি ও পকেট একটি মোবাইল উদ্ধার করে পুলিশ।

চাঁদপুর নৌ পুলিশ সুপার কামরুজ্জামান জানান, অজ্ঞাত ব্যক্তির নাম পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে চাঁদপুর মেঘনা নদীতে এর পূর্বেও বেশ কয়েকটি অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্বৃত্তরা হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে রেখে পালিয়ে যাচ্ছে। এই হত্যাকাণ্ড বন্ধ করার জন্য পুলিশের তৎপরতা প্রয়োজন ও যারা এর সাথে জড়িত রয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া দাবি জানান সচেতন মহল।

একই রকম খবর