চাঁদপুরের যুবক সনু সাহার শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি

স্টাফ রিপোটার : চাঁদপুরের দেবাশীষ সনু শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে চিকিৎসক। ২৮ মার্চ ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে কর্তৃপক্ষের রিপোর্টে এই তথ্য জানানো হয়। এর আগে করোনা ভাইরাস রোগের সন্দেহ নিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তা সনু সাহা ঢাকাযর এই হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

পরে ব্লাড টেস্ট করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তার ব্লাডে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি। হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সনু সাহা স্টোক করে মৃত্যুবরণ করেছে বলে মেডিকেল রিপোর্টে জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, পুরাণবাজার নিতাইগঞ্জ এলাকার রাজেন্দ্র সাহার পুত্র সনু সাহা নারায়ণগঞ্জে তার আত্মীয় বাড়িতে থেকে ব্যাংক এশিয়ায় চাকরি করতো। গত ১৫ দিন যাবত তার জ্বর, ঠান্ডা জনিত অসুখ ছিল। অসুখ নিয়ে সে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে সাধারণ বেডে চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে আসে। কিন্তু তার অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পুনরায় সে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মৃত্যুবরণ করে।

পরে তার লাশ নারায়ণগঞ্জে নেওয়া হয়। এদিকে সনু সাহার পিতা রাজেন্দ্র সাহা অসুস্থ্য ছেলের সাথে সাত দিন ছিলো বলে ব্লাড টেস্ট রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তাকে এবং তার মেয়েকে বাড়িতে থাকার জন্যে নির্দেশ দেয় পুলিশ।

এদিকে সনু সহা করোনা ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে বলে, এমন গুজবে পুরানবাজার নিতাইগঞ্জ এলাকায় মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করে। উৎসুক জনতা সনু সাহার বাড়ির আশপাশে ঘুরঘুর করতেও দেখা গেছে। বর্তমানে প্রয়াতের মেডিকেল রিপোর্ট আসার পর এলাকায় স্বস্তি ফিরে এসেছে।

একই রকম খবর