চাঁদপুরে কোস্টগার্ডের অভিযানে সাড়ে তিন লাখ মিটার কারেন্ট জাল আটক

স্টাফ রির্পোটার : চাঁদপুরের নদীতে মা ইলিশ সংরক্ষণে কোস্টগার্ডের দিনব্যাপী অব্যাহত অভিযানে সাড়ে ৩ লাখ মিটার কারেন্ট জালসহ ৮ জেলেকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) ভোর ৪ টা হইতে সকাল ৮ টা পর্যন্ত কোস্টগার্ড আউটপোস্ট হাইমচর এবং মৎস্য অধিদপ্তর হাইমচর কর্তৃক অভিযান চলাকালীন সময়ে মেঘনায় চাঁদপুর সদর উপজেলার বহরিয়া ও হরিনা এলাকায় একটি ইন্জিন চালিত কাঠের নৌকা, ২লাখ ৫০ হাজার মিটার জালসহ ৭০ কেজি ইলিশ মাছ এবং ৮ জেলেকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত জেলেরা হলো আল আমিন(২৫),আরিফ(২৫), নজরুল(২৭), দেলোয়ার(২৪), রুবেল(৩৬), খাজা আহমেদ(৩৫), শাকিল(২০), শাহজান (৫৫) । প্রত্যেকে চাঁদপুর জেলার গোবিন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা।

আটক জেলেদের উপজেলা নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট নিকট প্রেরণ করা হলে প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। ইন্জিন চালিত কাঠের নৌকা টি মৎস্য অধিদপ্তরে হস্তান্তর করা হয়। এবং জব্দকৃত জাল আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। জব্দকৃত মাছ স্থানীয় এতিম খানায় বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কোস্টগার্ড হাইমচরের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার ইসহাক,এমসিপিও(এক্স), সামুদ্রিক বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা জরিপ ব্যবস্থাপনা ইউনিট (কক্সবাজার) এর হাসান আনোয়ারুল কবির, মৎস্য সম্প্রসারন কর্মকর্তা সজিব চন্দ্র, মোঃ হাফিজ আহমদ প্রমুখ।

পৃথক পৃথক অভিযানে সকাল রাত ৩ টা হইতে সকাল ১০ টা পর্যন্ত কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট চরজালিয়া (রায়পুর) এবং মৎস অধিদপ্তরের যৌথ অভিযানে মেঘনা নদির, মাস্টারঘাঁট এলাকায় ১ টি ইন্জিন চালিত কাঠের নৌকা, ২০০০০ হাজার মিটার কারেন্ট নেট এবং ৭০ কেজি সমপরিমাণ মা ইলিশ উদ্ধার করা হয়। এসময় অসাধু জেলেরা পাড়ে নৌকা রেখে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে ইন্জিন চালিত কাঠের নৌকাটি উপজেলা নির্বাহী মেজিস্ট্রেট এর উপস্থিতিতে মৎস অধিদপ্তরকে হস্তান্তর করা হয়। এবং জব্দকৃত মাছ সমূহ স্থানীয় এতিম খানায় বিলি করে দেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী মেজিস্ট্রেট আক্তার জাহান সাথী, কোস্টগার্ড চরজালিয়া কন্টিনজেন্ট কমান্ডার লুৎফর রহমান, মতিন, পিও(মেড), মৎস্য কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন প্রমুখ।

অপরদিকে কোস্টগার্ড স্টেশান চাঁদপুর এবং মৎস্য অধিদপ্তরের যৌথ মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে সকাল ৪টা ২০মিনিট হইতে সকাল ৮ টা পর্যন্ত অভিযান চলাকালীন সময়ে নদিতে পাতানো অবস্থায় চাঁদপুর জেলার রাজরাজেশ্বর এলাকায় ৩০ হাজার মিটার কারেন্ট জালের সাথে ১০ কেজি সমপরিমান মা ইলিশ উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে সকাল ৯ টা হইতে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে নদীতে পাতানো অবস্থায় চাঁদপুর হরিনা এবং আলুরবাজার এলাকা হইতে ৫০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল এবং ২৫ কেজি মা ইলিশ উদ্ধারে সক্ষম হয় কোস্টগার্ড স্টেশান চাঁদপুর এবং মৎস্য অধিদপ্তর। উদ্ধার পরবর্তী কারেন্টজাল সমূহ আগুনে পুড়ে বিনষ্ট করা হয়। উদ্ধারকৃত মাছ স্থানীয় এতিম খানা এবং গরীব দুস্তদের মেঝে বিতরন করে দেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কোস্টগার্ড স্টেশান চাঁদপুরের নির্বাহী কর্মকর্তা শহীদুল হক, এমসিপিও (এক্স), কন্টিনজেন্ট কমান্ডার নাসির, পিও (মিউজ), মৎস সম্প্রসারন কর্মকর্তা ওহিদুজ্জামান এবং আশিকুর রহমান প্রমূখ।

একই রকম খবর