চাঁদপুরে মা’কে ছাড়াই ৩ শিশুকে নিয়ে সাগরিকা ট্রেনের স্টেশন অতিক্রম

মাসুদ হোসেন : ঘড়ির কাটায় তখন দুপুর ২টা ৫০ মিনিট। চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে প্রতিদিনের ন্যায় রবিবার (৩১ জুলাই) চাঁদপুর বড় স্টেশন ছেড়ে চলে আসে সাগরিকা এক্সপ্রেস ট্রেন।

পরবর্তীতে মৈশাদী রেল স্টেশনে থামে ট্রেনটি। বাবার বাড়ি থেকে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে তিন শিশু সন্তানকে নিয়ে রওনা দেন এক নারী। সাথে ছিলেন দুইজন মুরব্বীও। তারা লাকসাম হয়ে কুমিল্লা যাওয়ার কথা থাকলেও আর যেতে পারেন নি।

ট্রেন যাত্রী এক স্কুল ছাত্র সাজদিদ বলেন, আমি চাঁদপুর থেকে সাগরিকা ট্রেনে উঠি মধুরোড স্টেশন যাওয়ার জন্য। কিন্তু মৈশাদী রেল স্টেশনে ট্রেনটি থামলে ঐ নারী তার ৯ মাস বয়সী একটি মেয়ে সন্তান, ৮ বছর বয়সী আরেক ছেলে ও ১১ বছর বয়সী এক মেয়ে সন্তানকে ট্রেনের বগিতে ঠেলে উঠিয়ে ট্রেন থেকে নেমে তাদের সাথে থাকা দুইটি ব্যাগ আনতে গেলে এসময় ট্রেনটি ছেড়ে দিলে শিশুদের মা ও তাদের সাথে থাকা দুইজন মুরব্বি আর উঠতে পারেন নি। তিনি আরো বলেন, মহিলাটি একটু খাটো ও মৈশাদী রেল স্টেশনটি নিচু হওয়ায় তারা উঠতে পারেনি।

এসময় শিশুদের চিৎকারে এক অন্যরকম পরিবেশে পরিণত হয় ট্রেনের ভিতর। ট্রেনের অন্যান্য যাত্রীদের চেষ্টায় মেয়েটির দেয়া মায়ের মোবাইল নাম্বারে কল দিয়ে তাদেরকে মধুরোড আসতে বলে শিশুদেরকে মধুরোড রেল স্টেশনের পাশের একটি দোকানে পৌঁছে দেন। এবং কিছুক্ষণ পর শিশুদের মা এসে তাদেরকে উদ্ধার করেন। এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় ট্রেন যাত্রীরাও হতাশ।

 

একই রকম খবর