চাঁদপুরে মাধ্যমিক স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু

আবদুল গনি : চাঁদপুরে আজ থেকে ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। একই সঙ্গে ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নির্বাচনি পরীক্ষা হচ্ছে । ৩০ নভেম্বরের মধ্যে এ পরীক্ষা শেষ হচ্ছে।

মাউশির মহাপরিচালক প্রফেসর ড.সৈয়দ গোলাম ফারুক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশ দেয়া হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা এবং ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নির্বাচনি পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

যেসব নির্দেশনা মেনে অনুষ্ঠিত হবে পরীক্ষা

১.বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ গণিত বিষয়ে পরীক্ষা নিতে হবে;২.পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের মান হবে ৫০ নম্বরের; ৩.প্রতিটি বিষয়ের পরীক্ষার সময় হবে ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট;

যে সিলেবাসে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

যে সকল অধ্যায় থেকে অ্যাসাইনমেন্ট (বাংলা,ইংরেজি ও সাধারণ গণিত বিষয়) দেয়া হয়েছে সে সকল অধ্যায় এবং ১২/০১/২০২১ হতে শ্রেণিকক্ষে যে সকল অধ্যায়ের ওপর পাঠদান করা হয়েছে তা ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য সিলেবাস।

বার্ষিক বা নির্বাচনি পরীক্ষার নম্বর বিন্যাস

(ক) বাংলা (১ম ও ২য় পত্র) বিষয়ের নম্বর হবে-৫০ (লিখিত ৩৫ +এমসিকিউ ১৫); (খ) ইংরেজি (১ম ও ২য় পত্র) বিষয়ের নম্বর হবে-৫০ (১ম পত্র ৩০+ ২য় পত্র-২০); (গ) সাধারণ গণিত বিষয়ের নম্বর হবে-৫০ (লিখিত-৩৫ + এমসিকিউ-১৫); (ঘ) প্রত্যেক শিক্ষার্থীর বার্ষিক পরীক্ষার নম্বরের সঙ্গে চলমান সকল বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্টের ওপর ৪০ নম্বর যোগ করতে হবে।

(ঙ) বার্ষিক পরীক্ষায় ৭ম শ্রেণি থেকে ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর আরও ১০ নম্বর যোগ করতে হবে।

উল্লেখ্য,৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সঙ্গে বৃক্ষরোপণ প্রকল্পে তাদের কর্মতৎপরতা যুক্ত করে এ ১০ নম্বর যোগ করতে হবে।

(চ) মোট ১০০ নম্বরের (৫০+৪০+১০) ওপর প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে মূল্যায়নপূর্বক বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল তৈরি করে শিক্ষার্থীদের প্রগ্রেসিভ রিপোর্ট প্রদান করতে হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, অবশ্যই যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে বার্ষিক ও নির্বাচনি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে নিদের্শনা রয়েছে ।
প্রসঙ্গত, চাঁদপুর জেলার ৮ উপজেলায় ২৮০টি সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুল, ২০১ মাদ্রাসা একই স্যলেবাসে,একই সরকারি নিদের্শনায়,একই তারিখ ও বারে এ পরীক্ষা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি,চাঁদপুরের সভাপতি ও গণি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আব্বাস উদ্দিন বলেন,‘ সরকারি নিদের্শনা মেনে সংক্ষিপ্ত পরিসরে এবারে শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা গ্রহণ করতে যাাচ্ছি। তাই ৩টি বিষয়ে পরীক্ষা নিচ্ছি। করোনাকালীন সময়ে শিক্ষার্থীদের এ্যাসাইনমেন্টের নম্বর যোগ করে আমরা বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করব।এতে আশা করি-অভিভাবকগণও বিচলিত হবেন না ।’

তিনি আরো বলেন,‘জেলার সকল প্রতিষ্ঠান প্রধানদের শিক্ষা অধিদপ্তরের যথাযথ নিদের্শনা মেনে পরীক্ষাগ্রহণের অনুরোধ জানান।’

জেলা মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক সমিতি,চাঁদপুরের সভাপতি মো.বেলাল হোসেন বলেন,‘করোনা মহামারীর কারণে শিক্ষার্থীগণ লেখাপড়ায় পিছিয়ে গেলেও আমরা শিক্ষকগণ এ্যাসাইনমেন্ট ও অনলাইন শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করেছি। সরকারি নির্দেশনা মতে সংক্ষিপ্তভাবে পরীক্ষা গ্রহণ করে ফলাফল প্রকাশের মাধ্যমে শিক্ষার্থীগণকে লেখাপড়ার মূলধারায় ফিরিয়ে আনতে উজ্জীবিত করবে। আমরা শিক্ষকগণ আশা করি নতুন বছরে নতুন আনন্দঘন পরিবেশ নিয়ে শ্রেণিকার্যক্রম চালাতে পারব।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘শিক্ষকগণের অভিভাবকদের সাথে সন্তোষজনক আলাপ-আলোচনার ভিত্তিতে স্কুলের পাওনাদি আদায় করা যেতে পারে। কেননা সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই দীর্ঘদিন ধরে আর্থিক দৈন্যদশায় জর্জরিত।’

 

একই রকম খবর