জাতীয় পত্রিকার দু’সাংবাদিকের সাথে চাঁদপুরে সাংবাদিকদের মতবিনিময়

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরে জাতীয় পর্যায়ের দুই সাংবাদিকের সাথে চাঁদপুর প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মির্জা জাকিরের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে চাঁদপুরসহ দেশের বিভিন্নস্থানে দায়িত্বরত জাতীয় পত্রিকায় তিনদশকেরও বেশি সময় সাংবাদিকতা পেশায় কাজ করা,দৈনিক যুগান্তরের বিশেষ প্রতিনিধি ও বানিজ্যিক এডিটর হেলাল উদ্দিন বলেন, জীবনে বড় ও প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিক হতে হলে সকল লোভ লালসা ত্যাগ করতে হবে।

সাংবাদিকদের তাঁর কাজের প্রতি আস্থা ও লক্ষ্য স্থীর থাকলে সফলতা অবশ্বই আসবে। তিনি আরো বলেন,আমার জীবনে যা হওয়ার চিন্তা ছিলো তার চাইতে বেশি কিছু হয়েছি বলে মনে করি। জীবনে প্রথমে দৈনিক খবর পত্রিকায় কাজ করার চেষ্টা করি ছিলাম। ঐ সময় পরে অনেক চেষ্টার পর চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি হয়েছিলাম।পরে আমার কর্ম দক্ষতায় আজ দেশের সেরা পত্রিকা যুগান্তরে কাজ করার সুযোগ হয়েছে। ওই সময়ে কাজ করতে গিয়ে চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের প্রবীন সাংবাদিকদের সহযোগিতা থেকে বঞ্চিত হই।আজকে সে প্রেস ক্লাবে এই অনুষ্ঠানে এসে অনেক নতুন তরুন সাংবাদিকদের দেখে আমি অনেক অভিভূত হয়েছি। জীবনে সাংবাদিকতা করতে গিয়ে অন্যায়ের সাথে কখনো আপোস করিনি।তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন,এ পেশাটাকে মহান পেশা হিসেবে দেখেন। তাহলে আপনারাও এক সময় লক্ষ্য মাত্রায় পৌঁছতে পারবেন। চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকদের জন্য আমার দরজা সব সময় উন্মুক্ত থাকবে।

এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দীর্ঘ দুই দশক সাংবাদিক পেশায় কমরত এবং এস এ টিভির সাবেক হেড অব নিউজ মাহমুদ আল- ফয়সাল বলেছেন,সাংবাদিকরা নিজেদেরকে আলোক হিসেবে দেখুন। আপনারা নিজেদেরকে আলোকিত করতে পারবেন। পেশাগত ভাবে সাংবাদিকদের ঐক্যের প্রয়োজন রয়েছে।তাহলে সাংবাদিকরা তাদের কর্মে সঠিকভাবে এগিয়ে যেতে পারবে। তিনি আরো বলেন,সাংবাদিকরা দেশ ও জাতির কাছে দায়বদ্ধ থাকতে হবে। তাহলেই দেশ ও জাতির কল্যাণে বহুদূর এগিয়ে যেতে পারবেন।তিনি চাঁদপুর সম্পর্কে বলেন,শহরের মিশন রোডে একটি ময়লার বাঘার(স্তপ) দেখতে পেলাম। শহরের প্রধান স্থানে এরূপ ময়লার বাঘার জনসাধারণের চলাচলে স্বাস্থ্যগত বিঘ্ন সৃষ্টি ঘটাচেছ।এটি এখান থেকে অপসারনের জন্য আপনাদের স্থানীয় প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে বলে আমি মনে করি।এছাড়া শহরে যে পরিমান অটো দেখতে পেলাম এতে আমার মনে হলো চাঁদপুর শহরটি অটোর শহরে পরিণত হয়েছে। তিনি আরো বলেন,ঐক্যবদ্ধ শক্তির মাধ্যমে যে কোন অপশক্তিকে ধংস করা সম্ভব।সাংবাদিকরা জাতিকে এগিয়ে নিতে এই ঐক্যের মাধ্যমে সহযোগিতা করতে পারেন।এ সময় তিনি বলেন,আমার সাংবাদিকতার ৩২

বছরে বহু সাংবাদিক দেখেছি।তাঁর মধ্যে সাংবাদিক হেলাল উদ্দিন হচ্ছেন অন্যতম।কারন তিনি হচ্ছেন নিউজের ডিপো।চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক মির্জা জাকিরের পরিচালনায় এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন,চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরাম চৌধুরী,কাজী শাহাদাৎ,বি এম হান্নান,শহীদ পাটওয়ারী,শরীফ চৌধুরী,সাবেক সাধারন সম্পাদক রহিম বাদশা,গিয়াস উদ্দিন মিলন,সাবেক সহ-সভাপতি অধ্যাপক মোঃ দেলোয়ার আহমেদ,প্রেস ক্লাব প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক আহসানুজ্জামান মন্টু,টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আল ইমরান শোভন,সিনিয়র সাংবাদিক জিয়াউর রহমান বেলাল প্রমুখ।বক্তাদের এসময় দীর্ঘ ক্ষনের খোলামেলা আলোচনা এক ধরনের আড্ডায় পরিণত হয়।তাঁরা উন্মুক্ত এ আড্ডায় তাঁদের জিবনের দুঃখ-সুখের স্মৃতিময় কথা গুলো সবার মাঝে বলে ভাব বিনিময় করেন।এ সময় স্থানীয় ও বিভিন্ন জাতীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।অনুষ্ঠানের শুরুতে অতিথিরা চাঁদপুর প্রেস ক্লাবে আসলে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দরা অতিথিদের পৃথক পৃথকভাবে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।পরে তাঁরা চাঁদপুর শহরের বড় ষ্টেশনের মোলহেডে ঘুরতে যান।সেখানে ট্রলারযোগে পুরাণ বাজার হরিসভা এলাকার মেঘনা ভাঙ্গনের সচিত্র দেখা সহ সবাই কিছুক্ষণ নদী পথে ভ্রমণ করেন এবং বিশেষ মূহুর্তে সেলফি ও ফটোশেশান করতে থাকেন।

একই রকম খবর

Leave a Comment