চাঁদপুরে ২ সন্তানের প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ করলো মুহরি, ধর্ষক আটক

বিশেষ প্রতিনিধি : চাঁদপুর প্রবাসী স্বামীর সম্পত্তিগত মামলার নিষ্পত্তি করার কথা বলে খালি ৯টি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে ২ সন্তানের জননীকে ধর্ষণ করলো মুহরি মাসুদ আলম (২৮)।

বৃহস্পতিবার (৪ আগষ্ট) দুপুরে মুহরী মাসুদকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। বুধবার রাতে শহরের প্রফেসরপাড়া এলাকা থেকে চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই মোঃ শাহজাহান মুহরী মাসুদ কে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

বুধবার সকালে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন সংশোধন ২০০৩, ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণ করায় মুহরী মাসুদ হোসেন ও তার সহযোগী রুবেল এর বিরুদ্ধে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী নারী। মামলা নং-১২, ৪/৮/২০২২। মাসুদ আলম ঘোলঘর বিটি রোডের আঃ লতিফ দেওয়ানের ছেলে। সে অ্যাড. আমিন আহমেদ এর সহকারী। অপর সহযোগী রুবেল মুহরী হাজীগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা। সে পলাতক রয়েছে।

জানা যায়, প্রবাসী স্বামীর পরিবারের সম্পত্তিগত মামলার নিষ্পত্তি করার কথা বলে গত ২৮ জুন শহরের ওয়ারলেস এলাকার একটি বাসায় ডাকা হয় ভুক্তভোগী নারীকে। পরে কৌশলে মাসুদ তাকে ধর্ষণ করে এবং সহযোগী রুবেল তা মোবাইল ফোনে ধারণ করে। স্বামী প্রবাসে থাকায় মামলার যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করতেন তার স্ত্রী। ভুক্তভোগী নারী জানান, মুহরি মাসুদ এর কাছ থেকে ৯টি খালি স্ট্যাম্প পুলিশ উদ্ধার করেছেন।

আমি মাসুদ ও রুবেলের শাস্তি দাবী করছি। চাঁদপুর সদর মডেল থানার এসআই মোঃ শাহজাহান জানান, ভুক্তভোগী নারীকে মেডিকেলের জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রুবেল নামের অপর আসামী পলাতক রয়েছে।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ আবদুর রশিদ জানান, অভিযুক্ত মাসুদ আলম কে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

একই রকম খবর