চাঁদপুর গ্র্যান্ড সিটি রেস্টুরেন্টে গ্রাহকদের সাথে প্রতারণা

সাইদ হোসেন অপু চৌধুরী : চাঁদপুর শহরের রেলওয়ে হকার্স মার্কেটের সামনে অবস্থিত গ্র্যান্ড সিটি রেস্টুরেন্ট কতৃপক্ষ গ্রাহকদের সাথে প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী কয়েকজন গ্রাহকরা জানান গত ০৪ জুলাই দুপুরে আমরা কয়েকজন বন্ধুরা গ্র্যান্ড সিটি রেষ্টুরেন্টে খাবার খেতে যাই। তাদের মেনুতে থাকা তিনটি হ্যান্ডি বিরিয়ানী যার প্রতিটির মুল্য ৩০০ টাকা করে ও একটি ব্যাম্বু বিরিয়ানী যার মুল্য ২৫০ টাকায় অর্ডার করা হয়। কিছু সময় পর খাবার পরিবেশন করা হয়।

তাদের নিয়ম আনুযায়ী ব্যাম্বু বিরিয়ানী যথারীতি ব্যাম্বুতে আর হ্যান্ডী বিরিয়ানী তাদের স্টীলের হাড়ীতে পরিবেশন করে। ব্যাম্বু বিরিয়ানিটি গরম ছিল কিন্তু হাড়ী বিরিয়ানিটি উপরে কিছুটা গরম ছিল কিন্তু ভিতরে সম্পুর্ণ ঠান্ডা ছিল এবং পরিমান অনেক কম ছিল।

যখন তাদেরকে জিজ্ঞাসা করা হয় রেষ্টুরেন্ট কতৃপক্ষ বলে এটা এমনই। আর তাদের খাবারের সাথে পরিবেশন করা সালাদ ২ টুকরো শষা ও আচার, যার পরিমান এতটাই কম ছিল ৪ জনের জন্য দেখতে তা খুবই দৃষ্টিকটু ছিল। যখন কেষ্টুরেন্টে কতৃপক্ষকে বলা হয় তারা উত্তর দেয় আমাদের এই পরিমানই পরিবেশন করা হয়। পরবর্তীতে ম্যানেজারকে বলা হয় তিনি সম্পুর্ণ বিষয়টিকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন এবং কারন হিসেবে বলেন সার্ভিসের সবাই নতুন এবং খাবার ঠান্ডার জন্য বলা বিদ্যুৎ অনেক সময় না থাকার জন্য এমন হয়েছে।

যখন এর বিপরীতে তাকে প্রশ্ন করা হয় যে আপনারা কি রান্না বিদ্যুৎ চালিত চুলাতে করেন কিনা তখন তাদের কোন উত্তর পাওয়া যায় নাই। ম্যানেজার কাছ থেকে মালিকপক্ষের মোবাইল নাম্বার চাইলে তিনি দিতে অস্বীকৃতি জানান। পরবর্তীতে ফেইসবুকের একটি ফুড গ্লাটন নামক পেইজে ঘটনাটি শেয়ার করা হলে অনেকেই তাদের সাথে ঘটে যাওয়া একই ব্যবহার ও নিম্ন মানের খাবার পরিবেশনের অভিজ্ঞতার কথা বলেন। যা থেকে বুঝা যায় তারা গ্রহকদের সাথে প্রতিনিয়ত খাবার ব্যবসার নামে প্রতারণা করে আসছে। তাই ভক্তোভোগীদের দাবী যথাযথ কতৃপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিবে।

একই রকম খবর