চাঁদপুর জেলা বিএনপির বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশ

ইব্রাহিম খান : সারাদেশে লোডশেডিং ও জ্বালানী খাতে অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে চাঁদপুর জেলা বিএনপি।

গতকাল ৩১ জুলাই রবিবার বিকেলে চাঁদপুর জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে ট্রাকের উপর অস্থায়ী মঞ্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

এ সময় তিনি বলেন, দেশে আজকে আমাদের সাংবিধানিক অধিকার নেই মৌলিক অধিকার নেই। আমার আপনার ট্যাক্সের পয়সায় যে পুলিশের বেতন হয়। সেই পুলিশই আমাদের উপর গুলি চালায়।মনেরাখবেন এদেশের জনগন কিন্তু আপনাদের ক্ষমা করবেনা। আজকে সময় এসেছে রাজপথে আন্দোলনে জাপিয়ে পড়ার।আজকে এই সমাবেশ থেকে বলতে চাই আগামীর নির্বাচন হবে হাসিনা বিহীন নির্বাচন তত্ত্বাবধাক সরকারের অধিনে নির্বাচন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ব্যতীত এদেশে কোন নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না।

চাঁদপুর জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক অ্যাড. সলিম উল্লাহ সেলিমের সভাপতিত্বে ও জেলা বিএনপির সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোশারফ হাজী ও সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জাহাঙ্গীর হোসেন খানের যৌথ পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মুনির চৌধুরী,চাঁদপুর শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হারুনূর রশীদ, ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি শরীফ মোঃ ইউনুস,জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক এম এ শুক্কুর পাটওয়ারী, হুমায়ন কবির, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. জহিরউদ্দিন বাবর, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহজালাল মিশন, পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফ উদ্দিন আহমেদ পলাশ,হাইমচর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক খোরশেদ কতোলায়, জেলা যুবদলের সভাপতি মানিকুর রহমান মানিক,জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ইমাম হোসেন গাজী ।

সমাববেশে বক্তারা বলেন,এই সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই।এই সরকার চাল নিয়ে চালবাজি করেছে এখন আবার তেল নিয়ে তেলবাজি শুরু করেছে। এদের ক্ষমতায় থাকার কোন অধিকার নেই। আগামী দিনে একদপা একদাবি হাসিনা তুই কবে যাবি এই আন্দোলনের মাধ্যমে হাসিনা সরকারের পতন ঘটাতে হবে।

এর আগে জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সভাস্থলে উপস্থিত হন।

একই রকম খবর