চাঁদপুর প্রিমিয়ার হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় ৩ সন্তানের জননীর মৃত্যু!

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের প্রিমিয়ার হাসপাতালে গত ১৪ মে ঈদের দিন দিবাগত  রাতে ডাক্তার ফাতেমা খাতুনের ভুল চিকিৎসায় ৩ সন্তানের জননী ফরিদগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের হারুনুর রশিদ মজুমদারের স্ত্রী লিমা মজুমদার ওরফে আফরোজা বেগম(২৮) এর মৃত্যু হয়। তার প্রসববেদনা হলে প্রিমিয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার ঘরে একটি ফুটফুটে নবজাতক ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। নবজাতককে ঢাকা শিশু হাসপাতালে রেফার করা হয়।

ওই রাতেই চাঁদপুর মডেল থানাকে জানালে, এস, আই, রাসেদ ঘটনাস্থলে এসে সত্যতা পায়। রাতেই স্বজনদের সাথে প্রিমিয়ার হাসপাতাল বসে মামলা না করার জন্য। নিহতের আত্মীয় ইউসুফ ও আরো লোকজন নিয়ে ডাক্তার মোবারক হোসেন ও ডাক্তার ফাতেফা রফাদফা করে। স্বজনরা ১৫ লাখ টাকা দাবী করলে ৪ লাখ টাকা রফাদফা হয়।

স্বজনরা জানান, মৃত্যুর পর লিমা মজুমদার ওরফে আফরোজার লাশ প্রিমিয়ার হাসপাতালের বাহিরে রেখে দেয়। তারা এ ব্যপারে আক্ষেপ করে।

ডাক্তার ফাতেমা খাতুন জানান, লিমা মজুমদার ওরফেআফরোজা বেগম স্ট্রোক করে মারা যায়। আমি তাকে তিনবার সিজার করেছি, তার তিন বাচ্চা আমার হাতে সিজার করা।গত শনিবার বাদ যোহর ফরিদগঞ্জের ইসলামপুর মজুমদার বাড়িতে লিমা মজুমদার ওরপে আফরোজা বেগমের জানাজা তার শশুর বাড়িতে অনুষ্ঠিত হয়। পরে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

একই রকম খবর