চাঁদপুর সদর উপজেলার ইটভাটার মালিকদের সাথে মতবিনিময়

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট : পরিবেশ অধিদপ্তর, চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের উদ্যোগে চাঁদপুর জেলার সদর উপজেলার ইটভাটার মালিকদের সাথে বুধবার (১৫ জানুয়ারি) মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন পরিবেশ অধিদপ্তর, চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এ, এইচ, এম, রাসেদ। উপ-পরিচালক এ, এইচ, এম, রাসেদ সভায় “ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইন, ২০১৯” মোতাবেক ইটভাটা পরিচালনার জন্য ইটভাটার মালিকগণকে অনুরোধ করেন।

এছাড়া আইন অনুযায়ী নিষিদ্ধ এলাকায় অবস্থিত ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধকরণসহ আধুনিক প্রযুক্তিতে রূপান্তর করা হয়নি এমন ইটভাটাকে আইন অনুযায়ী ইটভাটার অবস্থান গ্রহণযোগ্য থাকলে জিগজ্যাগে রূপান্তর করার জন্য বলা হয়।

এছাড়া সরকারী কাজে পর্যায়ক্রমে ব্লক ইট ব্যবহারের বাধ্যতামূলক করার বিষয়টি সভায় অবহিত করা হয়। মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি শেখ আবদুর রশিদ, সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহ মোঃ শফিকুল ইসলাম, মেসার্স বিআরএস ব্রিকস এর পরিচালক শেখ সোহেল, মেসার্স এফবিএম ব্রিকসের স্বত্বাধিকারী জনাব মোঃ ফখরুল ইসলামসহ অন্যান্যরা। তাঁরা ইটভাটা পরিচালনায় পরিবেশ অধিদপ্তরের সহায়তা কামনা করেন।

সভায় বিস্তারিত আলোচনা শেষে নিম্নবর্ণিত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।“ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইন, ২০১৯” মোতাবেক সকল ইটভাটা পরিচালনা করতে হবে। আইন অনুযায়ী নিষিদ্ধ এলাকায় অবস্থিত ইটভাটার কার্যক্রম সম্পূর্ণরুপে বন্ধ রাখতে হবে। যে সকল ইটভাটার অনুকূলে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র রয়েছে, সেসকল ইটভাটার অনুকূলে প্রদত্ত ছাড়পত্রের মেয়াদ উর্ত্তীণের ০১ (এক) মাস পূর্বে নবায়নের আবেদন দাখিল করতে হবে।

সকল ইটভাটা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র এবং জেলা প্রশাসনের ইট পোড়ানো লাইসেন্স গ্রহণপূর্বক পরিচালনা করতে হবে। ১২০ ফুট উচ্চতার চিমনীর যে সকল ইটভাটা রয়েছে তাঁদের ইটভাটার অবস্থান যদি “ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইন, ২০১৯” মোতাবেক গ্রহণযোগ্য অবস্থানে থাকে তবে তাঁরা জিগজ্যাগ পদ্ধতিতে ইটভাটাকে রূপান্তরপূর্বক পরিচালনা করবেন।

অন্যথায় ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধ রাখতে হবে। ইটভাটায় মাটির ব্যবহারসহ অন্যান্য বিষয়সমূহ আইন অনুযায়ী পরিচালনা করতে হবে। পরিবেশ অধিদপ্তর, চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের উদ্যোগে এখন পর্যন্ত মোট ০৮ (আট)টি উপজেলার ইটভাটার মালিকদের সাথে অর্থ্যাৎ সকল উপজেলার ইটভাটার মালিকদের সাথে মতবিনিময় সভা সম্পন্ন করা হয়েছে।

একই রকম খবর