ছাত্রলীগ ও সাংবাদিক পরিবারকে আমাদের নিজস্ব পরিবার মনে করি : ডাঃ জে আর ওয়াদুদ টিপু

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট : দৈনিক ইত্তেফাকের দীর্ঘ সময়ের জেনারেল ম্যানেজার ও ছাত্রলীগের প্রথম নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ভাষাবীর এমএ ওয়াদুদের জ্যেষ্ঠ পুত্র, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও সমাজসেবক ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু বলেছেন, ছাত্রলীগ ও সাংবাদিক পরিবারকে আমরা আমাদের নিজস্ব পরিবার মনে করি। কারণ, আপনারা জানেন, আমাদের বাবা এমএ ওয়াদুদ ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে একেবারে শুরু থেকে নেতৃত্বে ছিলেন। আবার দীর্ঘ সময় যাবত সাংবাদিকতার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। তাই আমাদের পরিবারটি যেমনিভাবে রাজনীতিক পরিবার, তেমনি সাংবাদিক পরিবারও। এই দুটি পরিবারের প্রতি আমাদের তথা আমার ও আমার বোন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির একটি বিশেষ দুর্বলতা রয়েছে। আর সেই দুর্বলতা থেকেই সাংবাদিকদের সাথে আমাদের সুসম্পর্ক এবং সখ্যতা দীর্ঘদিনের। চাঁদপুর প্রেসক্লাবের বেলায়ও এটি রয়েছে।

ডাঃ জেআর ওয়াদুদ টিপু গতকাল শুক্রবার চাঁদপুর প্রেসক্লাবের অর্ধ-বার্ষিক সাধারণ সভায় তাঁর বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি তাঁর একটি বিশেষ ইচ্ছার কথা জানিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, আসলে রাজনীতির মূল কথা যে, জনসেবা, সেটি আমরা অনেকেই ভুলে যাই। আমি এবং আমার বোন দীপু মনি জনগণের সেবা করার ব্রত নিয়েই রাজনীতি করছি। তারপরও দেখা যাচ্ছে যে, মাঝেমধ্যে নানা কারণে কিছু কিছু বিষয়ে সমঝোতা করতে হয়, ছাড় দিতে হয়। সে জন্য আমি একেবারে নিজের আবেগের জায়গা থেকে একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি সরাসরি মানুষের উপকার করার বিষয়ে।

যেমন কোনো অসহায় পরিবার। সে পরিবারটিকে একটা পুঁজি দিলে পরিবারটি দাঁড়িয়ে যাবে। কোনো অসুস্থ মানুষ, যার চিকিৎসার কোনো টাকা পয়সা নেই। সেই অসুস্থ মানুষটির চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেয়া। এভাবে নানা সমস্যাগ্রস্ত মানুষগুলোর পাশে সরাসরি দাঁড়াতে চাই। আর এ ক্ষেত্রে সাংবাদিকদের ভূমিকা এবং সহযোগিতা অবশ্যই লাগবে। আর যে সাংবাদিক এসব অসহায় ও সমস্যাগ্রস্ত মানুষের তথ্য মিডিয়ায় তুলে ধরবেন, তাঁদেরকে আমার পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হবে। তিনি চাঁদপুরের সাংবাদিক সমাজ এবং প্রেসক্লাবের সাথে সবসময় ছিলেন এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন বলে জানান। তাঁর সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী ও আওয়ামী লীগ নেতা রাকিব উদ্দিন জুয়েল ঢালী।

 

একই রকম খবর