হাইমচরে ডা. দীপু মনির গণসংযোগ ও উঠান বৈঠক

স্টাফ রিপোর্টার : ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনকে সামনে রেখে চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি হাইমচর উপজেলায় সমাবেশ, উঠান বৈঠক, পথ সভাসহ দিনব্যাপী ব্যাপক গণসংযোগ করেন।

প্রতিটি উঠান বৈঠক ও জনসভায় ছিল নারী পুরুষের উপচেপরা ভিড়।

১৪ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে শুরু করে বিকেল পর্যন্ত হাইমচর উপজেলার দক্ষিণ আলগী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মালেদের বাড়ির উঠান বৈঠক, গন্ডামারা হালাদার বাজারের পথ সভা, জনতা বাজার এলাকার জি এম জাহিদের বাড়ির উঠোন বৈঠক, ২নং ওয়ার্ডের পশ্চিম চর কৃষ্ণপুর লুতু গাজীর বাড়ির উঠোন বৈঠক ও সবশেষে চরভাঙ্গা উচ্চ বিদ্যলয় মাঠে বিশাল সমাবেশে ডাঃ দীপু মনি বক্তব্য রাখেন।

এ সময় তিনি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনে নৌকার ঐতিহাসিক বিজয়রে পর থেকে গত ১০ বছরে জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে যে উন্নয়ন জয়েছে তা আপনারা সকলেই দেখেছেন। সে উন্নয়নের কথা বিবেচনা করে আমাকে পুনরায় আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিন।

উপস্থিত সকলকে বলেন, আমি যখন হাইমচরে প্রথম আসলাম তখন দেখেছি এই এলাকার মানুষ মেঘনার ভাঙ্গনের কাছে কত অসহায়। তখনই মনে মনে ভেবেছি এই মানুষ গুলোর অসহায়ত্ব দুরকরে তাদের মুখে হাঁসি ফোটাতে আমি আমার সাধ্যমত চেষ্টা করবো। আমাকে আপনারা সুজুগ দিয়েছেন বলেই মেঘনার ভাঙ্গন রোধে আজ আমি কিছুটা হলেও সফল হয়েছি। আজ প্রতিটা বাড়ীতে দালান বড়-বড় ঘর দেখছি দেখেছি তাদের মুখে হাঁসি। আবারো আমাকে সুজুগ দিলে আমি আপনাদের জন্য আরো অনেক কিছু করতে চাই।

তিনি বেগম জিয়া প্রসঙ্গে বলেন, বিএনপির লোকজন বলেন এবার ১টি ভোট দিলে আমাদের মা খালেদা জিয়া মুক্ত হবে। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা মামলা দেয় নাই মামলা দিয়েছে তত্বাবধায়ক সরকার। কেন দিয়েছে এতিমের টাকা আত্মসাতের কারনে তিনি আজ কারাগারে আছেন। আমাদের পবিত্র কোরানে বলা আছে এতিমের অর্থ আত্বসাৎ করা যাবেনা। ধর্মের বিধিনিষেধ ও দেশের প্রচলিত আইনের বিধি অমান্য করেছেন বলেই তিনি জেল খাটছেন। ওনাকে শেখ হাসিনা জেলে পাঠায় নাই আগের সরকারের আমলের মামলায় ওনি জেল খাটছেন। বিগত দশ বছরের উন্নয়ন কাজের কথা উল্লেখ করে বলেন, চাঁদপুর-হাইমচর মেঘনা নদীর ভাঙ্গন প্রতিরোধে প্রায় ১৯ কিলোমিটার স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ,

লাকসাম-চাঁদপুর রেললাইন সংস্কার, ৩২৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণ, ১৫০ মেগা ওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ, শতভাগ বিদ্যুতায়ন, চাঁদপুরে মেডিকেল কলেজ স্থাপন, ৫৩টি উচ্চ বিদ্যালয় মাদরাসা ও কলেজের ভবন নির্মাণ, ২৩৭ কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরণ, ৩৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণ, ১৫৯টি সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ, মেরিন একাডেমী, পাসপোর্ট অফিস, নাসিং ইন্সটিটিউট, ১৫০ কোটি টাকা ব্যায়ে আধুনিক নৌবন্দর(প্রক্রিয়াধীন), ১১টি ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন স্থাপন, ৩০টি আশ্রয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৩৭৫০ টি পরিবারকে ঘর বরাদ্ধ, ২টি আধুনিক পানি শোধনাগার নির্মাণ, ৫৯ হাজার কোটি টাকা ব্যায়ে সাড়ে ১০ হাজার একর জমির উপর বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল (প্রক্রিয়াধীন)।

তিনি ভোট প্রসঙ্গে বলেন, আমাকে আরেকটি বার সুযোগ দিলে অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ করার সুযোগ পাব। সবার ঘরে ঘরে যাওয়া হয়তো এত অল্প সময়ে আমার পক্ষে হবে না। তাই প্রত্যেকে এক এক জন দীপু মনি হয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চাইবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা সালাউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, সহ প্রচার সম্পাদক হাসান ইমাম বাদশা, সদস্য এডভোকেট সাইদুল ইসলাম বাবু, হাইমচর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোতালেব জমাদার, সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান নুর হোসেন পাটওয়ারী, সহ সভাপতি এম এ বাশার, হাইমচর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি জয়দুল হোসেন আখন্দ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক জাফর ইকবাল মুন্না, হাইচর উপজেলা পরিষদ ভাইচ চেয়ারম্যান এস এম কবির, জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম মিলন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জহির উদ্দিন মিজি, থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফখরু উদ্দিন, ৩নং দক্ষিণ আলগী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আহমেদ রাজা পাটওয়ারী, সাধারন সম্পাদক আলী আহমেদ দেওয়ান, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তা বেগম, সাধারণ সম্পাদক ফাজিমা বেগম, ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ হোসেন, সাধারন সম্পাদক মিরাজ পাটওয়ারী প্রমূখ।

একই রকম খবর

Leave a Comment