আমি শতভাগ আশাবাদী নেত্রী আমাকে মনোনয়ন দিবে : এম ইসফাক আহসান

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুর-২(মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলা)আসন থেকে নৌকার টিকেট পাওয়ার জন্য সোমবার আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দেন তারুণ্যের অহংকার ,তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা ও বিশিষ্ট শিল্পপতি এম. ইসফাক আহসান।

নির্বাচনী আসনের মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলার আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে বিরাট মিছিল নিয়ে ধানমন্ডি তে মনোনয়ন ফরম জমা দেন এম. ইসফাক আহসান।

তিনি দীর্ঘদিন যাবত সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টার ব্যাপক হারে প্রচারনাপত্র করে চলছেন মতলবের বিভিন্ন পাড়ায়- মহল্লায়। দুই উপজেলার বাজারগুলোতেও লক্ষ্য করা যাচ্ছে তরুণ এই শিল্পপতির নির্বাচনী প্রচারণা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক সক্রিয় আওয়ামীলীগের এই মনোনয়ন প্রত্যাশী। মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয় এর ছবি সহ ব্যানার পোস্টার সাটানো হয়েছে।

এসব প্রচারণায় আওয়ামী লীগ সরকারের বিগত দিনের উন্নয়ন তুলে ধরে নৌকার পক্ষে ভোট চাইছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী এম ইসফাক আহসান । শুধু তাই নয় দুই উপজেলার তৃণমুলের নেতাকর্মীদের সাথে প্রতিনিয়তই সভা সমাবেশ করছেন তিনি। চাঁদপুর-২ আসনে নৌকার জয়ের লক্ষ্যে কাজ করছেন এম. ইসফাক আহসান।

তিনি মতলব উত্তর উপজেলার লতুরদি গ্রামের শিল্পপতি ও সিআইপি প্রকৌশলী এএসএম কামরুল আহসানের সুযোগ্য পুত্র। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিভিন্ন অনুষ্ঠান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরাসরি প্রচার করছেন তিনি।

কয়েকটি ফেসবুক আইডি থেকে দলীয় প্রচার করে সাধারণ মানুষের কাছে তিনি এখন সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসেবে জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে অনেক এগিয়ে গেছেন। আগামী নির্বাচনে এই আসনে বিপুল ভোটে নৌকা মার্কার প্রার্থী কে জয়ী করাই তার লক্ষ্য। সোমবার আওয়ামী লীগের দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম জমা দান কালে সাংবাদিকদের এম. ইসফাক আহসান বলেন, আওয়ামীলীগের প্রচার প্রচারণার ক্ষেত্রে আমি ব্যাপক সক্রিয়। যত বেশি প্রচার হবে ততবেশি মানুষ আওয়ামীলীগকে জানবে, বঙ্গবন্ধুকে জানবে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানবে। তাই উন্নয়নের প্রতীক নৌকার পক্ষে আমি বেশি বেশি প্রচার করছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দল যাকেই মনোনয়ন দিবে আমি তার পক্ষেই কাজ করবো। চাঁদপুর-২ আসনে নৌকা মার্কার জয়ের লক্ষ্যে আমি আপ্রান চেস্টা করছি এবং চেস্টা অব্যাহত থাকবে। তিনি আরও বলেন, চাঁদপুর-২ থেকে দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি নির্বাচন করবো। আমার বিশ্বাস নেত্রী আমাকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে আগামী সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন দিবেন এবং মতলবের শান্তিপ্রিয় মানুষ আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। ইতিমধ্যে তৃণমূলের নেতাকর্মী ও মতলবের সকল জনগণের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। তারা মনে প্রাণে আমাকে সংসদ সদস্য হিসেবে পেতে চায়। তাদের অনুপ্রেরণাই আমি এতদূর এগোতে পেরেছি। আমি মানুষের এই অন্ধ ভালবাসার মূল্য দেওয়ার চেস্টা করবো ইনশাআল্লাহ্।আমি শতভাগ আশাবাদী নেত্রী আমাকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দিবেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশী এম ইসফাক আহসান বলেন,বাংলাদেশে যখনই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে তখনই দেশ ও জনগণের ব্যাপক উন্নয়ন হয়ে থাকে।তাই আসুন আগামী সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখি।স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিন। আর এদেশের স্বাধীনতা যেহেতু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পেয়েছি তাই স্বাধীনতার প্রতীক নৌকায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনা কে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।

একই রকম খবর

Leave a Comment