নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী আ’লীগ নেতা ও সমাজসেবক আবুল খায়ের মোল্লা

স্টাফ রিপোটার : শাহরাস্তির টামটা দক্ষিণ ইউনিয়নের সাবেক যুবলীগ যুগ্ন-আহবায়ক, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক, টামটা দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা তরুন সমাজসেবক ও আলিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মো: আবুল খায়ের মোল্লা সম্বাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন।

জানা যায়, তরুন সমাজসেবক আবুল খায়ের মোল্লা ছাএজীবন থেকেই ছাএলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। যিনি ইতিমধ্যে টামটা দক্ষিণ ইউনিয়নের জনগনের সুখে দু:খে একজন আপনজন হিসেবে স্থান করে নিয়েছেন। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সেবা, উন্নয়ন, বিদ্যুৎ,কৃষিসহ প্রত্যেকটি সেবামূলক কাজে জনগনের পাশে থেকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। করোনকালীন সহ প্রত্যকটি দুর্যোগে অসহায় ও সুবিধা বঞ্চিত মানুযের কল্যাণে সহস্রাধিক জনগোষ্ঠীকে এান সহায়তা প্রদান ছিল লক্ষ্যনীয়।

আবুল খায়ের মোল্লা এলাকায় একজন সদালাপি,সৎ,সজ্জনব্যাক্তি, পরোপকারী , লোভহীন ও সাদামনের মানুষ হিসেবে পরিচিত। টামটা দক্ষিণ ইউনিয়নের সম্বাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে যিনি ইতিমধ্যেই ৯ টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটি গ্রামে ব্যাপক গণসংযোগ ও উঠান বৈঠক চালিয়ে যাচ্ছেন। গণসংযোগ ও উঠান বৈঠকে জনসাধারনের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণ ও উপস্থিতি যেন ঢল নেমেছে। স্থানীয় ভোটাররা জানান, এ এলাকার মানুযের সুখে দু:খে আমরা আবুল খায়ের মোল্লাকে কাছে পাই, তিনিই আমাদের আপনজন।

করোনা সময়ে কেউ আমাদের খবর রাখেনি, খায়ের মোল্লা আমাদের প্রত্যেকের ঘরে খাবার পৌছে দিয়েছেন। আমরা জননেএী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সংসদ সদস্য মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উওমের নিকট জোর দাবী জানাচ্ছি, আবুল খায়ের মোল্লাকে যেন নৌকা প্রতিক দেয়া হয়।

এ বিষয়ে সম্বাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী ও নৌকা প্রতিক প্রত্যাশী আবুল খায়ের মোল্লা জানান, ছাএজীবন থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে এলাকার মানুষের কল্যাণে সুখে দু:খে থেকে নিবেদিত হয়ে কাজ করার চেষ্টা করেছি। দেশের যেকোন দুর্যোগে চেষ্টা করেছি মানুষের পাশে দাড়ানোর।

আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, আমাদের অভিবাভক সংসদ সদস্য মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উওম, চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগ ও শাহরাস্তি উপজেলা আওয়ামীলীগের নিকট সম্বাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি।

একই রকম খবর