পুরানবাজারে নির্বাচনী মিছিলে হামলা, পুলিশসহ আহত ৪০

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরে বিএনপি-আওয়ামীলীগের মধ্যে নির্বাচনী মিছিলে হামলা ও গনসংযোগে হামলার ঘটনায় ২দফা সংঘর্ষের দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে পুলিশসহ কমপক্ষে ৪০ জন আওয়ামীলীগ ও বিএনপি নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রায় ২ঘন্টা ব্যাপী এ সংঘর্ষ চলতে থাকে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর বাসা-বাড়ি,ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাংচুরে ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ২দফা সংঘর্ষের ঘটনায় ব্যাপক লাঠি চার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনলে ও এখন পর্যন্ত এলাকায় ব্যাপক পুলিশ মোতায়েত রয়েছে। এলাকায় থমথমে ভাব বিরাজ করছে। এঘটনায় পুলিশসহ কমপক্ষে ৪০জন আহত হলেও ২৫ জনকে চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে। গুরুত্বর আহত ৯জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহরা হচ্ছেন, পুরানবাজার পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মো:আ:রশিদ,উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম,আল-আমিন,খালেক,দেলু,জাকির,জাকির পাটওয়ারী,মোরশেদ,শাওন,মান্নান,রাকিব,রুবরো,জিহাদ,শাহআলম.সেকান্তর,রোকেয়া,মনির হোসেন,শফিকুল ইসলাম,ফারুক,আব্দুল রহমান,সোলেমান,নিলয়,আবুল খায়ের,ছিডু দেওয়ান। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে চাঁদপুর মডেল থানার ডিউটি অফিসার জানান।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, রোববার সকালে পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ শহরের পুরানবাজার ৫নং ওয়ার্ডে উঠান বৈঠকের আয়োজন করে। পুরানবাজার ১নং ওয়ার্ড থেকে একটি মিছিল উঠান-বৈঠকে যোগ দিতে মিছিল করে যাচিছল। পথি মধ্যে বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিলে হামলা চালায়।

এ ঘটনায় আওয়ামীলীগ বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। উভয় দলের নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় এবং আধা ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষ চলতে থাকে। এতে করে কমপক্ষে ১৫জন আওয়ামীলীগ ও বিএনপি নেতাকর্মী আহত হয়। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে সকাল সাড়ে ১০টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে বলে পুলিশ সূত্রে যানা যায়।

পরে বেলা সাড়ে ১১টায় চাঁদপুর শহরের পুরানবাজারের নিতাই গঞ্জে বিএনপি প্রার্থী ধানের শীষ মার্কার শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক গনসংযোগ করতে গেলে আওয়ামীলীগ ও যুবলীগ কর্মীদের সাথে বিএনপি,যুবদল ও ছাত্র দলের নেতাকর্মীদের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে রুপ নেয়।

এলাকাবাসী জানান, এ সময় পুরান বাজার রিফুজি কলোনীর বিএনপি নেতা সফিক মিজি,রফিক মিজি মেহেদী ও ককটেল নাছির প্রধানিয়ার নেতৃত্বে এক দল যুবক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে এসে না বুঝে গনসংযোগে আসা বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর আত্যঘাতি হামলা চালায়। পরে এ ঘটনা পুরানবাজার নিতাইঞ্জ, রিফুজি কলোনি ও সুইপার কলোনী এলাকার নতুন রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ে। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে আওয়ামীলীগ,যুবলীগের নেতাকমীরা ও বিএনপির বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা। এর পরই শুরু হয় আওয়ামীলীগ-বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে দেশীয় অস্ত্রের মহড়া। এ সময় এলাকায় রনক্ষেত্রে পরিনত হয়।

এই সূত্র ধরে দু’পক্ষ ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়ার লিপ্ত হয়। এ সময় দেশীয় অস্ত্রসহ দু’পক্ষ ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে এবং বাসা বাড়িতে ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক হামলা চালায়। এতে করে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত উভয় দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে থেকে অসংখ্য নেতাকর্মী আহত হতে থাকে। এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীদের ইটের আঘাতে পুরানবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবদুর রশিদ,উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীরসহ ২ পুলিশ সদস্য আহত হয়। স্থানীয়দের ভাষ্য মতে, দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে পুলিশসহ অন্ত্যত ২৫ জন বিএনপি ও আওয়ামীলীগ নেতাকমী আহত হয়েছে।

এ ব্যাপরে চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান ,ঘটনার পর পর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের পুরানবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবদুর রশিদ,উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আহত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে এলাকায় ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে।

বিএনপি মনোনিত ধানের শীষ প্রার্থী শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক জানান, রোববার সকালে গনসংযোগে যান পৌর এলাকার ১ নং ওয়ার্ডের নতুন রাস্তায়। এ সময় স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকমীরা অতর্কিত হামলা চালায়। অবস্থা বেগতিক দেখে তিনি ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুরানবাজার এলাকা থমথমে অবস্থা বিরাজ করে।

একই রকম খবর

Leave a Comment