চাঁদপুরে প্রার্থী তালিকা থেকে বাদ পড়লেন ২ হেভিওয়েট প্রার্থী

আহম্মদ উল্যাহ : চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর- দক্ষিণ) আসনে চূড়ান্ত প্রার্থীর তালিকা থেকে বাদ পড়লেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম।

এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুরুল আমিন খান রুহুল।

এছাড়া চাঁদপুর-৪ আসনে সাবেক সংসদ সদস্য ড. শামছুল হক ভূঁইয়াকে বাদ দেয়া হয়েছে। এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন সাংবাদিক মুহম্মদ শফিকুর রহমান।

তবে কি কারণে চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর- দক্ষিণ) মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম ও চাঁদপুর-৪ আসনে সাবেক সংসদ সদস্য ড. শামছুল হক ভূঁইয়াকে বাদ পড়েছে তার কারণ জানা সম্ভব হয়নি । এই দুই হেভিওয়েট প্রার্থী বাদ পড়ায় চাঁদপুরে চমক সৃষ্টি করেছে । গতকাল সারাদিন এ নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে সর্বত্র।

শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর দলীয় কার্যালয় থেকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ ঘোষণা দেন। এর আগে রিটার্নিং অফিস থেকে বৈধতা পেয়েছিলেন মহাজোটের এ দুই হেভিওয়েট প্রার্থী।

এদিকে চাঁদপুরের ৫টি আসনে মহাজোটের চূড়ান্ত প্রার্থীদরে তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে। চূড়ান্ত প্রার্থীরা হলেন- চাঁদপুর-১ (কচুয়া) আসনে ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর, চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর-মতলব দক্ষিণ) আসনে নুরুল আমিন খান রুহুল, চাঁদপুর-৩ (চাঁদপুর সদর-হাইমচর ) আসনে ডা.দীপু মনি, চাঁদপুর-৪ আসনে মোহম্মদ শফিকুর রহমান ও চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্থি) আসনে মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম।

এবারের নির্বাচনে প্রথম থেকেই আলোচনায় ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। পরে চাঁদপুর-২ আসনে মায়ার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মো. মাজেদুর রহমান খান।

উল্লেখ্য, গত ৮ অক্টোবর তার বিরুদ্ধে ১১ বছর আগে দায়ের করা মামলায় অভিযোগ থেকে তাকে খালাস দেয়া হয়। একইসঙ্গে মায়ার বিরুদ্ধে নিন্ম আদালতের দেয়া ১৩ বছরের সাজার রায়ও বাতিল করা হয়।

একই রকম খবর

Leave a Comment