ফরিদগঞ্জে আ’লীগের ২২ নেতার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

এস.এম ইকবাল: চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাহেদ সরকার, ইউপি চেয়ারম্যান সহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের ২২ নেতাকে গ্রেফতার চেয়ে গত বুধবার মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারী) চাঁদপুরের আমলী আদালতে মামলা দিয়েছে পশ্চিম রুপসা গ্রামের সোহাগ হোসেন নামের এক যুবলীগ কর্মী।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাহেদ সরকারকে প্রধান আসামী করে মোট ২২ নেতার বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার চাঁদপুরের আমলী আদালতে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে । মামলার এজাহারে গত এক বছরে সংঘর্ষের তিনটি সংঘর্ষের ঘটনা উল্লেখ করা হয়েছে।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি এ মামলা না নেয়ায় তার পরামর্শেই আদালতে উক্ত মামলা দিয়েছে বলে আরজিতে উল্লেখ করা হয়েছে ।

এর আগে চাঁদপুর ৪ (ফরিদগঞ্জ) আসনের সাংসদ জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমানের অনুসারী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবু সুফিয়ার শাহীন ও সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি হেলাল উদ্দীন সহ ৪৭ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে সাবেক সাংসদ ডঃ শামছুল হক ভুঁইয়ার অনুসারী ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারী বাদি হয়ে মামলা দিয়েছে গত ১১ জানুরয়ারী শুত্রবার রাতে ।

এবার মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপির অনুসারী যুবলীগ নেতা সোহাগ বাদী হয়ে ১৪ জানুয়ারী দায়ের করা ওই মামলার উল্লেখযোগ্য অন্যান্য আসামীরা হলেন উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক অহিদুর রহমান রানা, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মহিউদ্দীন ইরান ভুঁইয়া,উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহাবুব আলম সোহাগ, সাধারন সম্পাদক জহিরুল ইসলাম সুজন, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি কাউছারুল আলম কামরুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুব আলম পাটওয়ারী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সহিদুল্ল্য্ াতফাদারের ছেলে শরীফ তফাদার, ৫নং গুপ্টি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মিজান ভদ্র, ফরিদগঞ্জের পৌরসভার বড়ালী গ্রামের কাউন্সিলার জামাল উদ্দীন, এমপি শফিকুর রহমাননের নিজ ইউনিয়নের ২ নং বালিথুবা ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ, সাবেক সাংসদ ডঃ শামছুল হক ভুঁইয়ার নিজ ইউনিয়ন ১৬নং (দক্ষিন) রুপসা ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইসকান্দার আলীর ছেলে যুবলীগের নেতা রুহুল আমিন রুবেল সহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের মোট ২২ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

দলীয় সুত্র জানায়, বর্তমান সাংসদ জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শফিকুর রহমান ও সাবেক সাংসদ ডঃ মোঃ শামছুল হক ভুঁইয়ার সমর্থকদের মধ্যে গত প্রায় এক বছরে তিনটি পৃথক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মামলার এজাহারে ওই তিনটি পৃথক সংঘর্ষের ঘটনা তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে গত বছরের ২৯ জানুয়ারী ২০১৯, ২য় ঘটনার তারিখ গত বছরের ১ মে ২০১৯ ও সর্বশেষ তৃতীয় ঘটনার এই বছরের ১০ জানুয়ারি ২০২০ ।
এ নিয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিব প্রতিনিধিকে বলেন, এ বিষয়ে কিছু জানা নেই। আদালতে দায়ের হওয়ার মামলার কোন আদেশ এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত থানায় পৌছেনি বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

একই রকম খবর