ফরিদগঞ্জ ৩টি দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

এস এম ইকবাল, ফরিদগঞ্জ : ফরিদগঞ্জ একই রাতে দুই বাজারে ৩ টি দোনে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এরমধ্যে ফরিদগঞ্জ মধ্য বাজারের ২টি ও ধানুয়া বাজারে ১ দোকোনে চুরির হয়েছে।

২ আগস্ট মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ফরিদগঞ্জ মধ্যবাজারের মিরা গার্মেন্টস ও ইকরা ফ্যাশন হাউজ এবং ধানুয়া বাজারের জেরিন টেলিকম এন্ড কসমেটিক্স এর দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি হয়।

ইকরা ফ্যাশনের মালিক মো.সুজন পাটওয়ারী বলেন, গতকাল সন্ধ্যা রাত থেকে প্রায় রাত সাড়ে এগারটা পর্যন্ত ইকরা ফ্যাশন হাউজের দোকানে ডেকোরেশনের কাজ করছিল। আমি রাতে শ্রমিকরা দোকানের কাজ শেষ করে রাত প্রায় ১২ টার সময় শ্রমিকদের বিদায় দিয়ে চলে যাই। এবং বাজার ব্যবসায়ীরা আমার মোবাইলে ফোন করে জানান, আমার পাশের মিরা গার্মেন্টসএ চুরি হয়েছে। এরপর আমি দ্রুত বাজারে এসে আমার দোকান খুলে দেখি আমার দোকানেও চুরি হয়েছে। চোরের দল আমার দোকান থেকে দামি দামি শাড়ি, থ্রীপিজ ও কসমেটিকস এবং দোকানে থাকা একটি আইফোন মোবাই নিয়ে যায়। এতে আমার প্রায় তিন লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

কি ভাবে চুরি হয়েছে হয়েছে যানতে চাইলে তিনি যানান, দোকানের চালের টিন খুলে চোর আমার দোকানে ডুকে চুরি করে আমার দোকানের পিচনের দরজার তালা ভেঙ্গে চলে যায়।

মিরা গার্মেন্টস’র মালিক মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, প্রতিদিনের ন্যায় রাত সাড়ে ৯ টায় দোকান বন্ধ করে বাড়ীতে চলে যাই। সকালে যথা নিয়মে দোকানের সাটার খুলে দেখি আমার ক্যাশ ভাঙ্গা এবং দোকানে থাকা সিসি ক্যামেরা ভাঙ্গাবস্থায় পড়ে আছে। তিনি আরো জানান, আমি মোকামে যাওয়ার জন্য ২ লক্ষ টাকা গতকাল রাতে ক্যাশে রেখে বাড়ি যাই, চোর আমার ক্যাশ ভেঙ্গে নগদ ২ লক্ষ টাকা ও প্রায় ৫০ পিস দামি কাপড় এবং ক্যাশে থাকা চেক বই থেকে তিনটি চেপাতা ছিড়ে নিয়ে যায়। এতে আমার প্রায় ৩ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এ ধিকে একই রাতে উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া বাজেরে জেরিন টেলিকম এন্ড কসমেটিকস এর দোকানের চুরির ঘটনা ঘটেছে। দোকানের মালিক জাহাঙ্গির হোসেন জানান, প্রতিদিনের ন্যায় রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়ি যাই এরপর চোর রাতের যেকোন সময় আমার দোকানের পিচনের টিন কেটে দোকানের বিতরে ডুকে দোকানের থাকা দামি-দামি কসমেটিকস নিয়ে যায়। এত প্রায় ৫০ হাজার টাকা মালামাল চোর নিয়ে গেছে বলে তিনি  দ্বাবী করেন।

ফরিদগঞ্জ বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবুল বলেন, খবর পেয়ে দু’টি দোকান পরিদর্শন করেছি। তবে চুরির ঘটনা দোকানের পিছন দিয়ে ঘটার কারনে নৈশ প্রহরিরা টের পায়নি।

এ ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন বলেন, ঘটনারস্থল পরিদর্শন করেছি, বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

একই রকম খবর