চাঁদপুর আহমাদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ফাজিল ৩য় বর্ষের বিদায়

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মাদ্রাসার গভর্ণিংবডির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য অালহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী বলেছেন,অামাদের অাজকের ছাত্র-ছাত্রীদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে।এজন্য নিজ নিজ ধর্মীয় শিক্ষাগুলোকে মনে প্রাণে লালন করতে হবে এবং মানুষের মধ্যে তা ছড়িয়ে দিতে হবে।অাজকে মাদ্রাসা শিক্ষায় পবিত্র কোরআণ হাদিস শিক্ষার পাশাপাশি বিজ্ঞান শিক্ষাসহ নানান জাগতিক শিক্ষা গুলোকে সরকার গুরুত্ব দিয়ে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে অনেক এগিয়ে নিয়ে গেছেন। যা তার কর্মক্ষেত্রে তাকে স্বপ্নপূরণে সাহায্য করবে।তাছাড়া পরিপূর্ণ মানুষ হিসাবে,দেশপ্রমিক হিসাবে সে গড়ে উঠবে।

তিনি আরো বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার ফাজিল শ্রেণীকে ডিগ্রীর মানে উন্নীত করেছেন।কামিল শিক্ষার্থীদের মাস্টার্স সমতুল্ল করেছেন।কওমি মাদ্রাগুলোকে স্বীকৃতি প্রদান করে সনদ প্রাপ্তির অাওতায় এনেছেন। যেসব দাবিদাওয়া বিগত সময়ে অালেম ওলারা করছিলেন তা কেউই পূরণ করতে পারেননি। কিন্তু জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা পূরণ করেছেন কাল অারবি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় অধীনস্ত এ মাদ্রাসার ফাজিল ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, উপাধ্যক্ষ মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, প্রভাষক মাওলানা অাব্দুল হামিদ, প্রভাষক জহিরুল ইসলাম, সাবেক অভিভাবক সদস্য অালহাজ্ব অাব্দুল জলিল, শিক্ষার্থী অাহমাদ হোসেন, শরীফুল ইসলাম,শাহাদাৎ হোসেন,শরীফ খান প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অালহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী অারো বলেন,প্রকৃত ইসলামীক শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে শিক্ষার্থীদের।দেশ, মাটি,স্বাধীণতা ও দেশের প্রকৃত ইতিহাস তাদের জানতে হবে।জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমাম ইসলামিক শিক্ষা প্রসারে ইসলামী ফাউন্ডেশন, মাদ্রাসা বোর্ড সহ সারা দেশব্যাপী ইসলামিক প্রতিষ্ঠান গড়ে দিয়ে গেছেন।তারই সুযোগ্য কন্যা সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সকল মাদ্রাসা,মসজিদসহ সকল ধর্মের মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন।তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন,অাজ যারা ফাজিল পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়ে কামিলে যাবে তারা দেশ প্রেমিক হবে।এইটুকুই তোমাদের কাছে প্রত্যাশা করি।এই দেশটা অামাদের সকলের।সফল প্রচেষ্টার মাধ্যমে অামরা একটা উন্নত দেশে পরিণত হতে চাই।অার শেখ হাসিনার ভীষণ বাস্তবায়ন করতে চাই।তিনি বলেন,অামার বাবা,দাদাসহ অনেক পূর্ব পুরুষরা এই মাদ্রাসার জন্য যথেষ্ট পরিশ্রম করে গেছেন।অামিও তাদের এই পথ ধরে অাছি এবং থাকবো।তোমরা সবার জন্য দোয়া করবে।বিশেষ করে এই দেশটা যেন নিরাপদে থাকে,শান্তি বজায় থাকে সেই জন্য তোমরা সব সময় দোয়া করো।এ সময় উপস্থিত ছিলেন,অভিভাবক সদস্য ইকবাল হোসেন,সহাকরী অধ্যাপক মাওলানা অাব্দুল মান্নান,প্রভাষক সুলতানা অাক্তার,সেফায়েত উল্লা খান,প্রভাষক মাওলানা অাব্দুল্লা,সহকারী শিক্ষক বিল্লাল হোসেন,অামিন অাহম্মেদ,মোঃ শহিদুল্লাহ,জিলানী,মোঃ সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।পরে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।দোয়া পরিচালনা করেন অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান।এর অাগে বিদায়ী শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান।

একই রকম খবর

Leave a Comment