বন্যার পানিতে ভেসে যাচ্ছে হাইমচর, কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার : বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে হাইমচর উপজেলা। ভয়াবহ বন্যার পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে। ৫ আগস্ট বুধবার বিকেলে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়ে পুরো উপজেলা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। এতে হঠাৎ করে চরম বিপাকে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

গতকাল বিকেলে থেকে ধীরে ধীরে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়ে বন্যার পানিতে পরিণত হতে দেখা গেছে। বিকাল ৫ টায় চরভৈরবী ইউনিয়ন এর বিভিন্ন সড়ক পানিতে ডুবে যেতে দেখা যায়। এর মধ্যে চরভৈরবী লন্চঘাট বাজার আমতলা বাজার হাইমচর উপজেলা যাওয়ার জন্য যে সড়ক এ সড়ক দিয়ে পানি অতিবাহিত হয়েছে সহর আলীর মোড় খোরশেদ আলীর মোড় এছাড়া চরভৈরবী ইউনিয়নে এমন কোন ঘর নেই যা পানিতে তলিয়ে না গেছে।

এছাড়াও সবার মাছের ঘের পানিতে তলিয়ে কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। উপজেলা যাওয়ার সড়কগুলো বন্যার পানিতে ডুবে যেতে দেখা যায়। এতে করে ছোট-বড় বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে।

হঠাৎ করে সড়ক গুলোতে বন্যার পানিতে প্লাবিত হওয়ায় অনেক সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়। হাইমচরে বন্যা পানি বেড়ে যাওয়ায় মানুষ ঘর বাড়ি ছেড়ে আশ্রয় কেন্দ্রে চলে গিয়েছে কিছু মানুষ ভেরি বাঁধের উপরে উঠে গিয়েছে এবং চলাচলের জন্য ইউনিয়ন বাসীর যে প্রধান সড়ক পানির প্রবল চাপে ভেঙ্গে গেছে। এদিকে মানুষ ঘর বন্দী হয়ে যায় এ সময় আলোর দিশারী সামাজিক সংগঠন এর লোকজন গিয়ে পানিবন্দি মানুষকে নৌকা দিয়ে উদ্ধার করেন এবং নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেন। এমন কি শুকনো খাবার ও দেওয়া হয়েছে সাধারন মানুষকে।

এদিকে এদিন রেকর্ড পরিমান পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় গ্রাম অঞ্চলের বহু পরিবার প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র নিয়ে বেড়িবাঁধের সড়কের পাশে আশ্রয় নিয়েছেন। হঠাৎ করে চাঁদপুরে নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে প্লাবিত হওয়ায় সাধারণ মানুষের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে সবার একটাই কথা বিগত ৩০ বছরে ও এই পানি দেখিনি আমরা ধারণা করা হচ্ছে আগামীকাল ও পানি এরকম থাকার সম্ভাবনা সেজন্য এলাকাবাসীকে প্রস্তুত থাকতে হবে সচেতন থাকতে হবে যেকোনো মুহূর্তে পরিস্থিতি খারাপের দিকে যেতে পারে সবাইকে সতর্ক থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

একই রকম খবর