বাবুরহাট ও শিলন্দিয়ার কিশোর গ্যাংয়ের মুল হোতা রেড শান্তসহ আটক- ২

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর শহরের বাবুরহাট ও শিলন্দিয়া এলাকার কিশোর গ্যাংয়ের বহু অপকর্ম ও সন্তাসী কর্মকাণ্ডের মুল হোতা শান্ত পাটোয়ারী ওরফে রেড শান্তসহ ২ জন কে আটক করেছে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ।

জানাযায়, গত ১৫ এপ্রিল পবিত্র মাহে রমজানের সময় তারাবী নামাজ শুরুর প্রাক্কালে বাবুরহাট ও শিলন্দিয়া এলাকার চিহ্নিত কিশোর গ্যাং গ্রুপের মুল হোতা শান্ত পাটোয়ারী ওরফে রেড শান্ত উক্ত এলাকায় নিজের আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে এবং জনমনে আতংকের ভীতি ছড়ানোর উদ্দেশ্যে রেড শান্তের নেতৃত্বে ২০/২৫ জনের কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্যরা দেশীয় অস্ত্র সস্ত নিয়ে শিলন্দিয়া চৌধুরী বাড়ি এলাকায় বিভিন্ন বাসা বাড়িতে এলোপাথাড়ি আক্রমণ করে স্হানীয় এলাকাবাসীর মাঝে আতংকের ভীতি সৃষ্টি করে এবং এ সময় স্হানীয় ৩ যুবক যথাক্রমে মোঃ সিয়াম খান, (২১) পিতা- জহির খান ও রনি খান (২০)পিতা- হানিফ কে রাস্তায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে ফেলে যায়।
পরে এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে উভয়ই আহতকে ডিউটিরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার। ঘটনার ৫ দিন পর শান্ত পাটোয়ারী ওরফে রেড শান্ত কে ১ নং আসামী ও আরো ৩ জন কে নামীয় এবং অঞাত নামা আরো ৫/৬ আসামি করে আহত সিয়ামের বাবা জহির খান বাদী হয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং- ৬০ তাং২০/৪/২০২২ইং

মামলা দায়েরের পর থেকেই উল্লেখিত আসামীরা পলাতক ছিলেন। অবশেষে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই ইসমাইল কৌশল অবলম্বন করে গত ১০ মে গভীর রাতে রেড শান্ত কে বাবুরহাট এলাকা থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় এবং তাঁর স্বীকারোক্তিতে মামলার ৩ নং আসামী খোরশেদ ঢালী পিতা – ওসমান ঢালী কে আটক করে।

এবিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই ইসমাইল হোসেনের সাথে কথা হলে, তিনি বলেন, শান্ত পাটোয়ারী ওরফে রেড শান্তের বিরুদ্ধে বেশকটি অভিযোগ রয়েছে এবং মামলা রয়েছে। সম্প্রতি একটি মামলায় তাঁকে ও সহযোগী খোরশেদ ঢালী কে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

একই রকম খবর