মতলব উত্তরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বেদে পরিবারের মাঝে পৌঁছে দিলেন ইউএনও

মো. নাঈম মিয়াজী, মতলব উত্তর সংবাদদাতা: প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী বেদে পরিবারের মাঝে পৌঁছে দিয়েছেন চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এএম জহিরুল হায়াত।

২০ এপ্রিল সোমবার সকালে উপজেলার সজাতপুরস্থ বাজার সংলগ্ন এলাকায় বসবাসরত বেদে পরিবারের মাঝে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এসব উপহার তুলে দেন। প্রতিটি পরিবারের জন্য খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ ভোজ্য তেল, গুড়া দুধ।

জানা যায়, সুজাতপুর বাজার সংলগ্ন এলাকায় বসবাস করে বেদে পরিবাররা। এসব বেদেরা বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে গিয়ে সাপ ধরা, খেলা দেখানো, শিঙ্গা লাগানোসহ বিভিন্ন কাজ করে পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করতেন। য় লকডাউন ঘোষণার পর হতদরিদ্র বেদেরা অসহায় হয়ে পড়েন। নিরুপায় হয়ে সোমবার সকালে বেদেরা নিজেদের অসহায়ত্বের কথা ইউএনওকে মুঠোফোনে জানান।

বিষয়টি অবগত হয়ে তাৎক্ষণিক প্রধানমন্ত্রীর উপহার নিয়ে তিনি ওই বেদে পল্লীতে হাজির হন এবং সামাজিক দূূরত্ব বজায় রেখে বেদে সম্প্রদায়ের লোকজনের হাতে তা তুলে দেন। আর এসব পেয়ে খুশি বেদে পল্লীর লোকজনও। এ সময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার আওরঙ্গজেব, সিএ আমিনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

উপহার বিতরণকালে ইউএনও এএম জহিরুল হায়াত বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সরকারি নির্দেশনা মেনে ঘরে থাকা মানুষদের কথা ভেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার (খাদ্য সামগ্রী) যাতে উপজেলায় যোগ্য পরিবারের মাঝে পৌঁছানো যায় এ কারনেই নিজ গাড়িতে করে প্রত্যন্ত এলাকা ঘুরে প্রাপ্য যোগ্য পরিবারের কাছে উপহার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যহত থাকবে বলে জানান তিনি।

ইউএনও বেদে পল্লীর পরিবারদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হবেন না। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী বাড়িতে অবস্থান করুন। প্রয়োজন হলে আমাদের জানাবেন আমরাই আপনাদের জন্য খাবার নিয়ে আসব। মতলব উত্তরের একজন মানুষও না খেয়ে থাকবেন না। প্রয়োজনে আরও খাদ্য সামগ্রী আমরা দিবো।

একই রকম খবর