মতলব উত্তর-দক্ষিণে কার ভাগ্যে জুটছে ধানের শীর্ষ !

স্টাফ রিপোর্টার : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ) আসনে বিএনপির ১১ জন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে দুজনকে নিয়ে এলাকায় জোরেশোরে আলোচনা চলছে।

ওই দুজন হলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ড.মোহাম্মদ জালালউদ্দিন এবং সাবেক তথ্য ও সংস্থাপন প্রতিমন্ত্রী নুরুল হুদার ছেলে মো. তানভীর হুদা।

এ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন ফরম জমা দেওয়া বাকি নয়জন হলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মো. বোরহানউদ্দিন ও আতাউর রহমান ঢালী, মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ শুক্কুর পাটোয়ারী, সাবেক সাংসদ আলম খান, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সহসভাপতি ওবায়দুর রহমান, ছাত্রদলের সাবেক নেতা ফারুক আহমেদ, মতলব উত্তর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি নুরুল হক সরকার, বর্তমান সভাপতি আহসানউল্লা ফটিক ও বিএনপির নেতা মো. সেকুল।

মতলব দক্ষিণ উপজেলা বিএনপির সদস্য মো. সোহাগ বলেন, সাবেক প্রতিমন্ত্রীর ছেলে হিসেবে এলাকার রাজনীতিতে তানভীর হুদার যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। মন্ত্রী থাকার সুবাদে কেন্দ্রীয় বিএনপির অনেক নেতার সঙ্গে তাঁর বাবার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। বাবার ভাবমূর্তি কাজে লাগিয়ে তানভীরও কেন্দ্রীয় বিএনপির অনেক নেতার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এলাকায় নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে আসছেন। এ কারণে এবার তাঁর মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

জানতে চাইলে তানভীর হুদা বলেন, তাঁর প্রয়াত বাবার জনপ্রিয়তা এবং নিজের যোগ্যতাকে বিবেচনায় এনে দল তাঁর হাতেই ধানের শীষের মার্কা তুলে দেবেন।

মতলব উত্তর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক জিতু বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর গত ১০ বছর ধরে জালালউদ্দিন নানাভাবে বিএনপির নেতা-কর্মীদের আগলে রাখছেন। নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশের করা মামলা মোকাবিলায় অর্থ ব্যয়ের পাশাপাশি শ্রম দিয়েছেন। এ আসনে তিনিই ধানের শীষ পাওয়ার যোগ্য।

জানতে চাইলে মোহাম্মদ জালালউদ্দিন বলেন, তিনি দলীয় মনোনয়নের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন। দল তাঁকেই মনোনয়ন দেবে বলে তিনি আশাবাদী।

একই রকম খবর

Leave a Comment