মতলব পৌরসভা নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের দুই কাউন্সিলর প্রার্থী সমর্থকদের সংঘর্ষ : আহত ৮

স্টাফ রিপোটার: চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় ২৮ তারিখ অনুষ্ঠেয় মতলব পৌরসভার নির্বাচনে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ‘আওয়ামী লীগ’র কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল বাশার ওরফে পারভেজ এবং ‘বিএনপি’র কাউন্সিলর প্রার্থী শাহ গিয়াসের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যকার সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আটজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেল পাঁচটায় পৌরসভার পশ্চিম বাইশপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেল পাঁচটায় ওই পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম বাইশপুর গ্রামে বেপারি বাড়ির সামনে ভোটের প্রচারণায় নামেন কাউন্সিলর প্রার্থী শাহ গিয়াসের কর্মী-সমর্থকরা। এ সময় মাইক নিয়ে সেখানে প্রচারণা ও গণসংযোগ করছিলেন অপর কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল বাশার ওরফে পারভেজের কর্মী-সমর্থকরাও। দুপক্ষের লোকেরা একই জায়গায় প্রচারণা চালাতে গেলে তাঁদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি ও বাগ্বিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের কর্মী সমর্থকরা লাঠিসোঁটা ও দেশি অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয় পক্ষের আটজন আহত হন। পরে আশপাশের লোকজন ও পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সূত্রটি জানায়, ঘটনার পর আহত ওই আটজনকে সেখান থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় ও পরিবারের লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহত ব্যক্তিরা হলেন বাইশপুর গ্রামের রবিউল ইসলাম (২২), নাসির হোসেন (৫২), এমদাদুল হক (৫০), কাঞ্চনমালা (৫৫), সাহিদা বেগম (৫৫), মুক্তার হোসেন (৪৫), হৃদয় মোল্লা (২১) ও পাভেল মোল্লা (৪৬)। এঁদের মধ্যে নাসির হোসেন ও এমদাদুল হকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। উন্নত চিকিৎসার জন্য আজ সন্ধ্যায় তাঁদের চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে পরিবার সূত্র জানায়, নাসির ও এমদাদের মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অংশ রক্তাক্ত জখম হয়েছে। তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এ ঘটনায় ‘বিএনপি’র কাউন্সিলর প্রার্থী শাহ গিয়াস এবং ‘আওয়ামী লীগ’র কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল বাশার ওরফে পারভেজ একে অপরকে দায়ী করেন। ওই দুই প্রার্থী বলেন, এ ব্যাপারে তাঁরা থানায় মামলা করবেন। মামলার প্রস্তুতিও নিচ্ছেন।

একই রকম খবর