মৈশাদী ইউপি’র জনপ্রিয় চেয়ারম্যান মানিক এবারও নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট : চাঁদপুর সদর উপজেলার ৬নং মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রিয় ও জনবান্ধব চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মানিক স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহন করবেন।

১৩ অক্টোবর মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মানিক তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক আইডি থেকে নির্বাচন করার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি ফেসবুকে উল্লেখ করেন, আমি জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী গত ৫বছর জনগণের সেবা করার চেষ্টা করছি। আমি জনগণের সেবক হিসেবে থাকতে চাই। আমার কাজের মূল্যায়ন আগামী ১১নভেম্বর জনগণের ভোটের মাধ্যমে প্রকাশ করবেন। আমি মৈশাদী ইউনিয়ন বাসীর প্রতি দোয়া চাই। সর্বোপরি ইউনিয়নের জনগনের অনুরোধে তিনি এই সিদ্ধান্ত নেন ।

জানা যায়, মৈশাদী ইউনিয়নের উন্নয়ন , জনকল্যানে ও ইউনিয়নবাসীর ভাগ্যন্নয়নে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মানিক হয়েছেন চাঁদপুর জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান। গত ৫বছরে তার জনকল্যান ও সামাজিক এসব কর্মকান্ড একদিকে যেমন ইউনিয়নবাসীর নিকট হয়েছেন ব্যাপক জনপ্রিয় চেয়ারম্যান, অন্যদিকে জেলার প্রশাসনসহ দেশের অন্যান্য দপ্তরগুলো থেকেও কুড়িয়েছেন প্রসংশা। সব মিলিয়ে বাগিয়ে নিয়েছেন জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যানের সম্মানটুকু।

আরো খোঁজ নিয়ে জান যায়, মৈশাদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মানিক গত নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে অত্র ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের জন্য নিবেদিত ভাবে কাজ করে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। অসহায় নিপীগিত মানুষের পাশে থেকে তাদের সহায়তা করেছেন। ইউনিয়ন থেকে মাদক, বাল্য বিয়ে, ইভটিজিংসহ বিভিন্ন সামাজিক অবক্ষয় থেকে ইউনিয়নকে মুক্ত করেছেন।

উল্লেখ্য, মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিগত ৫বছর সুনামের সাথে ইউনিয়ন বাসীর কল্যানে কাজ করেছেন। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি এমপির সহযোগিতায় মৈশাদী ইউপিকে উন্নয়নের রোল মডেল তৈরি করেছেন।

তিনি অসহায় মানুষের পাশে থেকে সবসময় সহায়তা করেছেন। ইউনিয়নের সকলস্থানে উন্নয়নের ছোয়া লাগিয়েছেন। বিধাবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ও মাতৃত্বকালীন ভাতাসহ বিভিন্ন সহকারি সহায়তা ইউনিয়নের সকলের নিকট পৌছানোর জন্য সর্বদা চেষ্টা করেছেন। তার আমলে মৈশাদী ইউনিয়নের সকল সেবা অনলাইনে সহজেই পেয়েছে জনগন।

একই রকম খবর