রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় চাঁদপুরে কৃতি সন্তান ফুটবলার নওশেরুজ্জামান শায়িত

স্টাফ রিপোর্টার : রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের খেলোয়াড় একেএম নওশেরুজ্জামান চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন। ২২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে তার মরদেহ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার বদরপুরের গ্রামের বাড়িতে আসার পর তাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেয়া হয়। পরে বাদ আছর চতুর্থ দফা জানাজাশেষে তার মরদেহ পরিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। রাষ্ট্রীয় মর্যাদা ও জানাজায় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্নেহাশিষ দাস, কালেরকণ্ঠের স্পোটর্স এডিটর এটিএম সাইদুজ্জামান, মরহুমের বড়ভাই এএফএম বদিউজ্জামান খসরু, মতলব উত্তর থানা পুলিশ, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় লোকজন। এর আগে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হওয়ার পর বেশ কয়েকদিন লাইফ সাপোর্টে থেকে ৭০ বছর বয়সে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯টায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন নওশেরুজ্জামান।

পরে ২২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার মরহুমের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয় বাদ ফজর মগবাজার বড় মসজিদ, ২য় জানাজা সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে, তৃতীয় জানাজা বাদ যোহর মুন্সিগঞ্জ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা। ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান, পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান এবং জাতীয় নির্বাহী পরিষদের সকল সদস্য।

চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু জানান, ১৯৮২-৮৩ সালে চাঁদপুর জেলা ফুটলীগে বিভিন্ন দলের হয়ে খেলেছেন। বিশেষ করে মোহামেডান আর পূর্ব শ্রীরামদী ক্লাবের পক্ষে নিয়মিত খেলেছেন। তিনি জানান, তারা দু’ভাই ফুটবলার। নওশের ভাই স্টাইকার হিসেবে খেলতেন এবং শরীফ ভাই মিডফিল্ডে খেলতেন। তারা দু’জনেই ঢাকার মোহামেডান ক্লাবে খেলেছেন। নওশেরুজ্জামান ১৯৫০ সালের ৫ ডিসেম্বর মুন্সিগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৬৭ সালে রেলওয়ের হয়ে ক্লাব ক্যারিয়ার শুরু করেন। পরে ওয়ারী, ফায়ার সার্ভিস, ওয়াপদা ঘুরে ১৯৭৫ সালে যোগ দেন মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে। ১৯৭৮ থেকে ৮০ সাল পর্যন্ত খেলেছেন ওয়ান্ডারার্সে। স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের হয়ে মুক্তিযুদ্ধের সময় খেলা নওশেরুজ্জামান পরে বাংলাদেশের জার্সিতে খেলেছেন ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত।

নওশেরুজ্জামানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক :
সোমবার রাতে রাজধানীর ইবনে সিনা হাসপাতালে ৭২ বছর বয়সে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য ও জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার কেএম নওশেরুজ্জামান। তার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রেস উইং থেকে দেয়া বার্তায় বলা হয়েছে, ‘স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য ও জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার কেএম নওশেরুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।’

পৃথক শোকবার্তায় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, ‘স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন নওশেরুজ্জামান। দেশের ফুটবলকে এগিয়ে নিতে তিনি অনবদ্য ভূমিকা রেখেছেন। শুধু তাই নয়, মহান মুক্তিযুদ্ধেও তার অবদান বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবে। তাঁর মৃত্যু দেশের ফুটবলে এক অপূরণীয় ক্ষতি।’

একই রকম খবর