চাঁদপুরে রেদওয়ান খান বোরহানের পথসভা ও গণসংযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বিগত ১০ বছরের উন্নয়নের চিত্র সম্বলিত লিফলেট বিতরণের মাধ্যমে উন্নয়নের চিত্র জনগনের দৌঁরগোড়ায় পৌঁছে দিতে গ্রাম থেকে গ্রামে, পাড়া, মহল্লায় দিনব্যাপী ব্যাপক প্রচার প্রচারনা ও পথসভা এবং গনসংযোগ করেছেন চাঁদপুর-৩ (সদর ও হাইমচর) আসনের আওয়ামীলীগের মনোনায়ন প্রত্যাশী কেন্দ্রীয় মৎসজীবীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও জেলা মৎসজীবিলীগের সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও হাইমচর ও সদর আসনের সবচেয়ে জনপ্রিয় মূখ, জননন্দিত জননেতা আলহাজ্ব মোঃ রেদওয়ান খান বোরহান।

তিনি গত ১২ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১১টায় চাঁদপুর লঞ্চ ঘাট থেকে গণসংযোগ শুরু করে কালিবাড়ী হয়ে টাউন হল মার্কেটে এসে চাঁদপুর সিটি নিয়ন গ্রুপের কার্যালয়ে দলীয় নেতা-কর্মীদের সম্মুখে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখে। দুপুর সাড়ে ১২টায় পৌর ১৩নং ওয়ার্ডের উত্তর গুণরাজদী ঘোড়ামারা আশ্রয়ণ প্রকল্পে (গুচ্ছগ্রাম) গণসংযোগ করেন ও মার্কাজ জামে মসজিদের জুময়ার নামাজ আদায় ও মুসল্লিদের সাথে কুশল বিনিময় শেষে নৌকা মার্কার সমর্থনে উঠান বৈঠকে মিলিত হন। উঠান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট সমাজসেবক ও আওয়ামীলীগ নেতা মো. কালু বেপারী। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর-৩ (সদর ও হাইমচর) জননন্দিত জননেতা আলহাজ্ব মোঃ রেদওয়ান খান বোরহান।

বিকেলে তিনি পজেলার ৬নং মৈশাদী ইউনিয়নের মৈশাদাী তালতলা বাজার, ৫নং ওয়ার্ড দক্ষিণ পশ্চিম মৈশাদী গ্রামের বেপারী বাড়ীর জামে মসজিদ মাঠে উঠান বৈঠকে মিলিত হন। সেখানে তিনি দূঃস্থ্যদের মাঝে আর্থিক অনুদান প্রদান করেন এবং মসজিদের উন্নয়নে আর্থিক সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন এবং আছর নামাজ শেষে মুসল্লিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন ও বক্তব্য রাখেন এবং বাগাদী ইউনিয়নের ৫নং চরমেশা গ্রামে গনসংযোগ ও উঠান বৈঠক করেন।

রাতে তিনি বালিয়া ইউনিয়নের ফরক্কাবাদ বাজারে নৌকা মার্কার সমর্থনে গণসংযোগ করেন এবং প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা ডা. আবদুল খালেক মিয়া’র কবর জিয়ারত করেন।

আলহাজ্ব রেদওয়ান খান বোরহান গণসংযোগকালে বিভিন্ন পথসভায় ও উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, উন্নত দেশ গঠনে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই।

তিনি বলেন আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসলেই দেশের রাস্তাঘাট, ব্রিজ কালভার্ট, শিক্ষা ব্যবস্থা, মসজিদ, মন্দির, বিদ্যুত, যোগাযোগ ব্যবস্থা, সামাজিক উন্নয়ন সহ সকল ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন সম্ভব হয়। শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় থাকলে মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের পরিবর্তন হয়। যার প্রমান গত ১০ বছরে আপনারা পেয়েছেন। উন্নত বাংলাদেশের স্বপ্ন পূরনে নৌকার বিকল্প নেই। তাই এই দেশকে আরো এগিয়ে নিতে আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামীলীগকে জয়যুক্ত করতে হবে এবং সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে নৌকায় ভোট দিয়ে আবারো শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু এখন স্বপ্ন নয়, বাস্তব। পদ্মা সেতু চালু হলে দেশের প্রবৃদ্ধির হার হবে ১০%। দেশে গরীব মানুষ থাকবেনা। দক্ষিণাঞ্চলের সাথে সরাসরি সড়ক ও রেল যোগাযোগ সম্ভব হবে।

গনসংযোগকালে তার সাথে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সদর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি নাজমুল পাটওয়ারী, সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. জাকির হোসেন দুলাল, জেলা তরিকত ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক মাওঃ মিজানুর রহমান, চাঁদপুর জেলা যুব সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান মাইজা, সাধারন সম্পাদক জাকির হোসেন রাজা, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ক্রীয়া বিয়ষক সম্পাদক ছিদ্দিকুর রহমান পাটওয়ারী, ১৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী মৎসজীবিলীগের সভাপতি মোঃ রাজু বরকন্দাজ, সদর উপজেলার ৬নং মৈশাদী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোশারফ হোসেন বেপারী, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ কবির খান, সদর উপজেলার কল্যানপুর ইউনিয়নের মৎসজীবিলীগ নেতা জাকির হোসেন খান, আশিকাটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ সভাপতি হাকিম গাজী সহ আওয়ামীলীগ সহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।

একই রকম খবর

Leave a Comment