শাহমাহমুদপুরের মহিলা মেম্বার ফিরোজা বেগমের থানায় জিডি

চাঁদপুর খবর রিপোর্ট ঃ মিথ্যা, বানোয়াট দরখাস্ত দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ এনে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৪নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের ৪,৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের ৪বারের নির্বাচিত মহিলা মেম্বার ফিরোজা বেগম গতকাল ১৫ সেপ্টেম্বর মডেল থানায় জিডি এন্টি দায়ের করেন । জিডি নং ৭৭১ তারিখ : ১৫ .৯.২০২০খ্রি: । বিষয়টি তদন্ত করে অপরাধীদের মুখোস উম্মোচন এবং মানহানীর জন্য আইনী ব্যবস্থা দাবী জানান মহিলা মেম্বার ফিরোজা বেগম ।

চাঁদপুর মডেল থানায় দায়েরকৃত জিডিতে মহিলা মেম্বার ফিরোজা বেগম উল্লেখ করেন ,গত ৯/৬/২০২০ খ্রি: জনৈক খোরশেদ মিয়াজী পিতা,মৃত : আ:হক মিয়াজী সাং পাইকদী থানা ও জেলা চাঁদপুর এর নাম দিয়ে আমার নামে বিভিন্ন প্রকার মিথ্যা বানোয়াট তথ্য দিয়ে জেলা প্রশাসক চাঁদপুর মহোদয়সহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে দরখাস্ত প্রেরণ করে ।পরবর্তীতে জানতে পারি জনৈক খোরশেদ মিয়াজী এ ধরনের কোন অভিযোগ তিনি করেননি কিংবা এ ধরনের কাগজে স্বাক্ষর করেননি । সেই সাথে জনৈক খোরশেদ মিয়াজী উক্ত আবেদন মিথ্যা বলে জেলা প্রশাসক চাঁদপুর মহোদয়ের বরাবর একটি লিখিত প্রতিবেদন দাখিল করেন । অজ্ঞাত নামা কে বা কাহারা জনৈক খোরশেদ মিয়াজীর নাম ব্যবহার করে আমার নামে মিথ্যা বানোয়াট তথ্য প্রচার করে আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এমন কাজ করেছে ।

এ ব্যাপারে মহিলা মেম্বার ফিরোজা বেগম দৈনিক চাঁদপুর খবরকে জানান,আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি কুচক্রীমহল নানাভাবে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন ও মানহানী করতে নেপথ্যে থেকে শুরুমাত্র হয়রানির উদ্দেশ্যে এমন কাজ করতে পারে । আমি জনগনের ভোটে ৪বার নির্বাচিত হয়েছি । আমি জনমতকে বিশ্বাস করি ।

বিষয়টি তদন্ত পৃর্বক সংশ্লিষ্ট দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্বে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য চাঁদপুর জেলা প্রশাসক ,পুলিশ সুপার ,সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মডেল থানার ওসির নিকট আকুল আবেদন জানাচ্ছি ।

 

একই রকম খবর