শাহরাস্তিতে বাথরুমে শিক্ষার্থী আটকে পড়ার ঘটনায় আয়া বরখাস্ত : প্রধান শিক্ষককে শোকজ

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার হোসেনপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বাথরুমে এক শিক্ষার্থী ১১ ঘন্টা আটকে পড়ার ঘটনায় বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টদের গাফিলতির অভিযোগে বিদ্যালয়ের আয়া শাহানারা আক্তার শানুকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে জেলা শিক্ষা অফিস। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিরীন আক্তার, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ গিয়াসউদ্দিন পাটোয়ারী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আহসান উল্যাহ চৌধুরীসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের আয়া শাহানারা আক্তারকে সাময়িক বরখাস্ত ও গার্ড কবির হোসেনের কাছে কৈফিয়ত তলব করেছে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি। এছাড়া প্রধান শিক্ষক মোঃ আমীর হোসেনকে জেলা শিক্ষা অফিস থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। শাহরাস্তি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আহসান উল্যাহ চৌধুরী জানান, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় হতে প্রধান শিক্ষককে বাথরুমে ছাত্রী থাকাবস্থায় তালাবন্ধ করে চলে যাওয়া, স্থানীয় লোকজন তালা ভেঙে ওই ছাত্রীকে উদ্ধারের সময় ঘটনাস্থলে অনুপস্থিত থাকা, ঘটনার বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত না করা ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে ভর্তি করার পর তার বিশেষ যত্নের ব্যবস্থা না করায় কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে দায় এড়াতে পারেন না। প্রসঙ্গত, ওই বিদ্যালয়ের এসএসসি পরিক্ষার্থী বাক প্রতিবন্ধী শারমিন আক্তার বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় বিদ্যালয় ছুটির পর বাথরুমে গেলে তালা বন্ধ করে চলে যায় বিদ্যালয়ের আয়া শাহানারা আক্তার। রাত ১০টার পর বাথরুমের তালা ভেঙে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে।

একই রকম খবর